ওকাপিয়া ফ্রিডমের পর্যালোচনা: স্মার্ট কনজ্যুমারদের জন্য একটি সাধারণ ডিভাইস

Share

যখনই আমরা মোবাইল মার্কেট সম্পর্কে কথা বলি, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আমরা স্মার্টফোনের কথাই আলোচনা করে থাকি। কিন্তু বাংলাদেশের জনসংখ্যার একটি বিরাট অংশএখনো ফিচার ফোন ব্যবহার করছে। স্মার্টফোনের তুলনায় ফিচার ফোনের নাম দাম কিছুটা বেশি হওয়ায় অনেকের তা কেনার সামার্থ্য নেই এজন্য অথবা স্মার্টফোনেরতুলনায় ফিচার ফোন ব্যবহার সহজ হওয়ার কারণে এটি হতে পারে। এধরণের গ্রাহকদের কথা চিন্তা করে এবং প্রয়োজন উপলব্ধি করে ওকাপিয়া তাদের জন্য একটি সহায়কপণ্য বাজারে এনেছে। যেটি একইসাথে ফিচার ফোন হিসেবে কাজ করবে এবং স্মার্টফোনের সহায়ক ডিভাইস হিসেবেও কাজ করবে। ওকাপিয়া ফ্রিডম একটি ফিচার ফোন, তবেএই ফিচার ফোনটি সাজানো হয়েছে ব্লুটুথ শক্তি, এর সাথে রয়েছে স্মার্ট সার্পোটিং ডিভাইস যেটি অনেক জটিল বিষয়কে সহজ করে দিয়েছে।

ডিজাইন এবং হার্ডওয়্যার:

দূর থেকে দেখলে ওকাপিয়া ফ্রিডম দেখতে অনেকটা ফিচার ফোনের মতোই মনে হয়। প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি এই ডিভাইসটি খুব ছোট ছোট স্পটের মাধ্যমে আকর্ষণীয় করেতোলা হয়েছে। পাতলা উপকরণ দিয়ে তৈরি এই ডিভাইসটির ওজন মাত্র ৩৭.৬৭ গ্রাম এবং এর মতো হালকা ফোন (ডিভাইস) আমি এর আগে কখনো দেখিনি এবং ব্যবহারকরিনি।এটি পাতলা উপকরণ দিয়ে তৈরি মানে হচ্ছে ডিভাইসটি ইনকন্সপিকিয়াস (সহজে চোখে পড়ে না এমন) এবং নন ইনভ্যাসিভ (বডির ভিতরে যন্ত্রাংশের প্রয়োজনহয়না) উপকরণ দিয়েই তৈরি করা হয়েছে। মূল্যবান উপকরণ দিয়ে তৈরি করা হলেও ওকাপিয়া ফ্রিডম ক্রেতার ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রয়েছে। ফ্রিডম ফোনটি ওজন কমানোহয়েছে যেনো পড়ে গেলে এর ক্ষতি কম হয়। তবে ওজন কম হলেও এটি খুব বেশি শক্ত মনে হবে না।

20160208_175724-01[1]

ডিভাইসটিতে ডিরেকশন বাটনসহ একটি অত্যাধুনিক টি৯ কিবোর্ড, দুটি মাল্টিপারপাস সিলেকশন বাটন এবং কল গ্রহণ (রিসিভ) এবং বাতিল (রিজেক্ট) করার জন্য দুটিপৃথক বাটন অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এই বাটনগুলো বৃত্তকার এবং যখন এগুলো চাপা হয় তখন সন্তোষজনকভাবেই (ভালো ভাবে) কাজ করে। ওকাপিয়া ফিড্রমের সামনের দিকেএকটি স্পিকার রয়েছে। এটি খুব বেশি জোরে (লাউড) শব্দ না হলেও কথা বলার সময় এর (স্পিকারটির) কল কোয়ালিটি খুব ভালোই। স্পিকারটির ১.৪৪ ইঞ্চি নিচেই রয়েছে১২৮*১২৮ পিক্সেল সাদা এবং কালো টিএফটি ডিসপ্লে। মোবাইলটির পিছনের অংশে একটি ছোট রিমভেবল (সহজে খোলা যায়) কাভার রয়েছে, যার সাহায্যে আপনি সিমকার্ড (একটি মাত্র সিম কার্ড স্লট রয়েছে) স্লটে প্রবেশ করতে পারবেন।

20160208_174721-01[1]

সফটওয়্যার:

ওকাপিয়া ফ্রিডম ডিভাইসটি ব্যবহারের জন্য একবার আনলকড করার পর এর উপরের বাম দিকে তিনটি ডটেড-এ চাপ দিলেই আপনি তাৎক্ষনিক ব্লুটুথ কানেকশন অপশনেপ্রবেশ করতে পারবেন। এই অপশনের মাধ্যমে আপনি আপনার আশপাশে থাকা অন্যান্য ব্লুটুথ ডিভাইসগুলো স্ক্যান করে সংযোগ অথবা বিচ্ছিন্ন (ডিসকানেক্ট) করতেপারবেন। ব্লুটুথের কার্যকারিতা (ফাংশন) সম্পর্কে কিছুক্ষণের মধ্যে আমরা আরও আলোচনা করবো।

20160208_174959-01[1]

ফোনটির মাঝখানের বড় বাটনটি চাপ দিলেই আপনি মেইন মেনুতেযেতে পারবেন। ওই বাটনটির মাধ্যমে আপনি কল লগ, কন্টাক্টস, ম্যাসেজস, সেটিংস এবং টুলস অপশনগুলোতে প্রবেশ করতে পারবেন। এখানে ওকাপিয়া কেয়ার নামেএকটি অ্যাপও রয়েছে, যার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন কোথায় কোথায় ওকাপিয়া কেয়ার সেন্টার রয়েছে এবং এর সাথে সাথে যোগাযোগের জন্য এসব কেয়ারসেন্টারের হটলাইন নাম্বারগুলোও পাওয়া যাবে।

 

ডিভাইসটির টি৯ কিবোর্ড থেকে যে কোন নাম্বার টাইপ করে আপনি সরাসরি কল করতে পারবেন। আপনি যদি চান ওইকিবোর্ডেও মাধ্যমে বাংলাতেও টেক্স (ম্যাসেজ) লিখে পাঠাতে পারবেন, কারণ ওই কিবোর্ডটিতে রয়েছে বাংলা ফ্রন্ট। ডিভাইসটির স্ক্রিনের উপরের অংশে ডান দিকে ব্যাটারিরইন্ডিকেটর (নির্দেশকবাচিহ্ন) রয়েছে এবং উপরের বাম দিকে নেটওয়ার্ক সিগন্যাল এবং ব্লুটুথ কানেক্টিভিটির ইন্ডিকেটর দেখা যাবে।

পারফরমেন্স (কার্যক্ষমতা) এবং ব্লুটুথ ফাংশনালিটি (কার্যকারিতা):

ফ্রিডম মোবাইলটিতে স্বতন্ত্র হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ডিভাইস ব্যবহার করার কারণে এর সবকিছু অত্যন্ত দ্রুতগতিতে কাজ করে এবং কাজ করার সময় থেমে যায় না (নোল্যাগ)। ফ্রিডমের সাথে ব্লুটুথের মাধ্যমে একবার স্মার্টফোনের সাথে কানেক্ট করার পর ডিভাইস দুটির (ওকাপিয়া ফ্রিডমএবং স্মার্টফোন, যে দুটির মধ্যে ব্লুটুথের মাধ্যকেসংযোগ স্থাপন হবে) মধ্যে কত দ্রুত ডাটা ট্রান্সফার হচ্ছে তার উপর নির্ভর করবে এর নির্দিষ্ট ফাংশনগুলোর কাজের গতি। ডিভাইস দুটিতে ডাটা ট্রান্সফারের গতি যদি মন্থরহয় তাহলে ফাংশনগুলোও মন্থর গতিতে কাজ করবে।

20160208_175640-01[1]

খুব সহজ একটি পদ্ধতিতে ওকাপিয়া ফ্রিডমের মাধ্যমে স্মাটফোনে কানেক্ট করা যায়। এই পদ্ধতিতে আপনি আপনার সিম নিজের স্মার্টফোনেই রাখতে পারবেন কিন্তু ফ্রিডমেরমাধ্যমে স্মার্টফোনের কন্টাক্ট এবং ম্যাসেজে প্রবেশ করতে পারবেন। আপনার স্মার্টফোনে কোন নোটিফিকেশন এলে সেটি ফ্রিডমের মাধ্যমে আপনি দেখতে বা রিসিভ করতেপারবেন। এমনকি আপনি আপনার স্মার্টফোনের অ্যাপস স্টোর থেকে একটি ব্লুটুথ নোটিফায়ার ডাউনলোড করে ফ্রিডম ডিভাইসটিকে স্মার্টফোনের ক্যামেরার সাটার (খোলাবা বন্ধ করতে) এবং মিউজিক প্লেবেক কন্ট্রোলার হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। ডিভাইসটির সেরা অংশ হলো, এটি এ্যান্ট্রয়েড (অহফৎড়রফ), আইওএস (রঙঝ) এবংউইন্ডোজ ফোন ডিভাইসের (ডরহফড়ংি চযড়হব ফবারপবং) সাথে নিরবিচ্ছিনভাবে এবং সামঞ্জসপূর্ণভাবে (সুসঙ্গত) সব কাজ করতে পারে।
ব্লুটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোনের সাথে কানেক্ট হওয়ার পরও ডিভাইসটির ব্যাটারি খুব ভালো কাজ করে। ৩৫০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার) এর এই ছোট ব্যাটারিসারাদিন কার্যক্ষমতা থাকে এবং আরও কিছু একক চার্জ রয়েছে এবং এভারেজ ইউজারদের জন্য এটি যথেষ্ট।

উপসংহার:

20160208_180112-01[1]

যারা ফিচার ফোন অথবা স্মার্টফোনের সাথে মাননসই একটি উপযুক্ত ডিভাইস খুঁজছেন তাদের জন্য ওকাপিয়া ফ্রিডম হতে পারে চমৎকার একটি অপশন। যার মূল্যও মাত্র১৯৯০ টাকা। ফ্রিডমের ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি পদ্ধতিটি জিনিয়াস এবং যারা স্মার্টফোনের প্রাথমিক ফাংশনগুলো চালাতে চাইছেন তাদের প্রত্যেকের জন্য এটি অত্যন্ত কার্যকরিএকটি ডিভাইস। এটি ব্যবহারের ফলে আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারির কার্যক্ষমতা বেড়ে যাবে। যারা স্পর্শেও মাধ্যমে যোগাযোগ করতে চান তাদের জন্য এটি একটি দারুনপণ্য যেমন, একজন মোটর সাইকেল আরোহী রাস্তায় মোটর সাইকেল চালানোর সময় রাস্তা থেকে চোখ সরিয়ে মোবাইল দেখে ইনকামিং কল ধরতে পারেননা। ছাত্র এবংপথচারীদের মতো যারা পথে চলতে গিয়ে ছিনতাইয়ের ঝুঁকিতে থাকেন তাদের জন্য জন্যও সুলভ মূল্যের ফ্রিডম ডিভাইসটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি পণ্য। পরিশেষে বলা যায়যে, বৈচিত্র্যময় গ্রাহকদের জন্য ফ্রিডম একটি স্মার্ট পণ্য, যেটা সহজে ব্যবহার করা যায় এবং প্রয়োজনে কাজে লাগে। আরও ব্যাবহৃত স্মার্টফোন দেখতে ভিজিট করুন।

20160208_175531-01[1]

স্পেসিফিকেশনঃ 

চিপসেট এমটি: ৬২৬০ ডি
ডিসপ্লে সাইজ:  ১.৪৪ ইঞ্চি
ডিসপ্লে টাইপ টিএফটি: (টিএফটি)
ডিসপ্লে রেজল্যুশন: ১২৮*১২৮
সিঙ্গেল সিম স্ট্যান্ডবাই: হ্যাঁ
ব্যান্ড: জিএসএম ৯০০/ডিসিএস ১৮০০
ব্যাটারি: ৩৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার
আয়তন: (উচ্চতা, দৈর্ঘ্য, পুরুত্ব) (১১৩*৩৮*৮.২) মিলিমিটার
ইন্টারনাল মেমোরি: ৩২এমবি+৩২এমবি
ব্লুটুথ ডায়ালার: ফোনবুক/ম্যাসেজ/ক্যামেরা
স্পিকার: ১৫*১১ মিলিমিটার
ব্লুটুথ: হ্যাঁ
হ্যান্ডস ফ্রি: হ্যাঁ
ওয়্যারলেসএফএম: হ্যাঁ
মাইক্রো ৫ পিন ইউএসবি: হ্যাঁ
মেমোরি কার্ড সাপোর্ট নটএপ্লিকেবল: ( এন/এ)
ক্যামেরা নটএপ্লিকেবল: ( এন/এ)
টর্চ নটএপ্লিকেবল: ( এন/এ)
ভাইব্রেশন মটর: হ্যাঁ
ওজন: ৩৭.৬৭ গ্রাম

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments