নতুন অ্যাপল আইওএস৮ ব্যাবহারকারীদের কোন কোন ফিচার অফার দিবে

Share

সব সময় অ্যাপল আইফোন ব্যবহারকারীদের প্রত্যাশা থাকে প্রতিটি নতুন আইওএস-এর অপারেটিং সিস্টেমে থাকবে ব্যাপক পরিবর্তন। ২০১৩ সালের পর আইওএস৭ সেটে ইন্টারফেইস, ডিজাইন এবং কর্মকান্ডে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। চলতি বছরে সর্বাধিক পরিবর্তন সহকারে আইওএস৮ বাজারে আনতে অ্যাপল প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। খুব অল্প সময়ে সেটের সম্পূর্ণ বৈশিষ্ট জানতে পারবে, তবে সব ধরনের তথ্য এটাই নির্দেশ করে বাজারে নতুন আসতে যাওয়া  এ ফোন মানুষের মোবাইল ব্যবহারের গতিপথ পরিবর্তন করবে।

অ্যাপল ব্যবহারকারীরা ব্যাপক উন্নয়নের জন্যে ট্যাগ লাইন ব্যবহার করে। এই সেটে ক্লাউড কানেকটিভিটি, অ্যাপ ইন্টারেকশন, ডিভাইস ফ্র্যান্ডলিনেস এবং ডিজাইনে সবচেয়ে বড় পরিবর্তন।

ডিজাইনের পরিবর্তন নিয়ে তর্ক থাকলেও আসন্ন আইওএস৮ সবচেয়ে পরিবর্তন সম্বলিত সেট। এটি ফোনের মাধ্যমে আপনার সকল ইিন্টারেকশনকে প্রভাবিত করবে। মেইল, নটিফিকেশন এবং বহুমুখী কার্য সম্পন্ন ইন্টারফেইস পরিস্কারে আইওএস৭ ক্রিপ্স লুকিং এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবে। পূর্বের চেয়ে আরো সহজে মেইলের মাধ্যমে আপনি এখন প্রাসঙ্গিক শর্টকাট ব্যবহার করতে পারবেন। মাল্টিটাস্কিং ইন্টারফেস ব্যবহার করে সাম্প্রতিক যোগাযোগ রক্ষা করতে পারবেন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল বিদ্যমান অ্যাপস এ থেকে নটিফিকেশন পরিচালনা করতে পারবেন। নটিফিকেশন বলতে এখানে টেক্স মেসেজ, রিমাইন্ডার, মেইল এবং ক্যালেন্ডার নোট সর্ম্পকিত কাজগুলোকে বুঝানো হয়েছে। এমনকি আপনি বিদ্যমান কাজে থেকে টেক্সট মেসেজ এর উত্তর দিতে করতে পারবেন।

কথোপকথোন মেসেজ অ্যাপস এর কার্যক্রমে ব্যাপক হারে পরিবর্তন এসেছে। খুব সহজে সাউন্ড রেকর্ড করা ও শেয়ার করা যাবে, সাউন্ড সহকারে ভিডিও শুরু করা যাবে এবং খুব সহজে ভৌগলিক অবস্থান নির্ণয় করতে মেসেজে অবস্থান উঠে আসবে। এমনকি ভালো নিউজও। গ্রুপ মেসেজকে নতুন করে ডিজাইন করা হয়েছে। অধিক সময় ধরে কথোপকথনকালে প্রতি কয়েক সেকেন্ডে আপনার পকেট বাজিং ছেড়ে যাবে না। ডু নট ডিস্ট্রাব ফিচার আপনার সুবিধার জন্যে আপনাকে গ্রুপ ম্যাসেজ চেক করতে অনুমতি দিবে। গ্রুপ মেম্বার খুব সহজে যোগ ও বাদ দেওয়া যাবে এবং পুরো গ্রুপ নাম দিয়ে সেভ করা হবে যাতে বর্ণ দিয়ে কাজ করা যায়।

আপনি শুধু মাত্র অন্যদের সাথে ভালোভাবে সংযুক্ত থাকবেন না বরং এটি হবে আপনার নিজস্ব কম্পিউটিং ডিভাইস। অ্যাপল আইফোন ব্যবহারকারীরা তাদের আই প্যাড অথবা ম্যাককে একই কর্মক্ষেত্রের প্রকৃত এক্সটেনশন হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। ইমেল একটি ডিভাইস-এ শুরু হলে অন্যটির সাথে অঙ্গীভূতভাবে অব্যাহত থাকবে এবং ম্যাক ও আইপ্যাড উভয় থেকে টেক্স মেসেজ পাঠানো যাবে। ম্যাকস এবং আইপ্যাডকে আপনার আইফোনের মাধ্যমে একীভূত করা হয়েছে যাতে যেকোন ডিভাইসের উপরর্  ফোনের পূণ কার্যকারিতা বজায় থাকে।

পিসি ব্যবহারকারীদের আর কোথাও যেতে হবে না।  নতুন আপডেট আই ক্লাউড ড্রাইভ ব্যবহারকারী যেকোন ওয়েব সক্ষম ডিভাইস থেকে তাদের কনটেন্ট এর উপর কাজ করতে সক্ষম হবে। এছাড়া পুরো ডিভাইস জুড়ে খুব সহজে ডকুমেন্টস জমা ও সিঙ্ক করে রাখা যাবে। ডেভেলপার চাইলে আইক্লাউডকে কার্যকর করতে তার অ্যাপস-এ পছন্দসই অ্যাপস আনার মাধ্যমে সকল প্রডাক্টিভিটি টুলে সমান কার্যকারিতা আনতে পারেন।

অসংখ্য ব্যবহার কারী বছরের পর বছর এক ধরনের ফিচারের কথা চিন্তা করে আসছে। এর মধ্যে একটি এনড্রয়েড ব্যবহারকারীরা শুরু থেকেই পেয়েছেন যা হল কাস্টম কি বোর্ড। অ্যাপল আইফোন অপারেটিং সিসটেমে ডেভেলোপাররা সরাসরি কাস্টম কিবোর্ড এর সাথে যুক্ত হতে পারবেন।  এর মানে আপনি কিবোর্ডকে সোইফ অথবা পথ এর মতো ব্যবহার করতে পারবেন যাতে প্রত্যেক অ্যাপ থেকে আপনি আপনার সকল কাজ সম্পন্ন করতে পারেন। এমনকি নিজস্ব পরিবেশের বাইরে গিয়ে কাজ করা যাবে। এটা খুব অল্প আপডেট মনে হবে কিন্তু এতে পথ পরিবর্তনের পুরো সুযোগ-সুবিধা থাকবে যাতে করে ব্যবহারকারীরা যখন তাদের ডিভাইসে ডাটা ইনপুট করবে তখন এতে একক বিশাল সুবিধা পাওয়া যাবে।

সম্পূর্ণ নতুন একটি অ্যাপস হল হেলথ অ্যাপ। বহুমূখী স্বাস্থ্য ডাটা এ্যাপ্লিকেশন হিসেবে হেলথ অ্যাপ আপনার ব্যক্তিগত বিভিন্ন স্বাস্থ্য তথ্য চিহ্নিত করতে কাজ করবে। এর মধ্যে থাকবে ফিটনেস, মেডিকেশন, পুষ্টি, ঘুম এবং এমনকি হসপিটাল ল্যাব রেজাল্ট। ব্যবহারকারীরা স্বাস্থ্য অ্যাপ থেকে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা নিতে পারবেন। এটি শুধু আপনার স্বাস্থ্য চিহ্নিত করবে না বরং ডায়াগনেস্টিক উদ্দেশ্যে হাসপাতাল কর্মকর্তাদের দেয়া গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও পাওয়া যাবে।

হেলথ অ্যাপ শুধুমাত্র একটি নতুন ফিয়েচারের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবে তবে ডেভেলপাররা চাইলে এটিকে আরো সামনে এগিয়ে নিতে পারবেন। নতুন শেয়ারিং অপশন, কাস্টম অপশন যেটি মাল্টিটাস্কিং ইন্টারফেসকে প্রদর্শন করবে, টাচ আইডি ডাটা এবং ক্লাউড এর উপর এক্সেজ থাকবে। ডেভেলপারদের জন্যে প্রচুর সুযোগ থাকবে তারা চাইলে বিদ্যমান অ্যাপসকে প্রসারিত এবং নতুন অ্যাপস তৈরি করতে পারবে। আইফোন ক্যামেরায় অধিক কন্ট্রোল, ফটো এডিটিংর জন্যে ক্যামেরা রোল অভিগম্যতা এবং হোম কিটসহ কিছু ঔজ্জ্বলতম দিক থাকবে। তার সাথে সংযুক্ত হবে নিয়ন্ত্রনযোগ্য হোম ডিভাইস, যথাযথ টুল যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা তাদের আইফোন দিয়ে আলো, তাপমাত্রা এবং হোম সিকিউরিটি সিসটেম বজায় রাখতে পারবে।

সর্বশেষ ভিডিও গেইমস এ দেখা যাবে ব্যাপক পরিবর্তন। ডেভেলপারদের নতুন নতুন টুলের উপর অভিগমন থাকবে এতে তারা ২ডি এবং ৩ডি ডাটায় ব্যাপক পরিবর্তন নিয়ে কাজ করতে পারবে। অধিক চিত্তাকর্ষক হওয়া সত্বেও নতুন মেটাল ফেমওয়ার্ক যা ডেভেলপারদের আইফোন ৫এস এ পরিপূর্ণভাবে এ৭ চিফ উপযোগিতা পেতে সক্ষম করবে। এর মানে এতে মারাত্মক পদার্থ, অল এবং উন্নত গ্রাফিক্স এর মাধ্যমে ভিডিও গেইমস দেখা যাবে। কনসোল কোয়ালিটি গেইমসকে আইফোনে অনুমতি দিতে মেটালকে ডিজাইন করা হয়েছে। তাই ব্যবহারকারীরা ভালো কিছু আশা করতে পারেন।এখানে অনেক ভালো ভালো পরিবর্তন আছে, তার মানে এই না কোন বিভ্রান্তি ছাড়াই আপডেট হবে।

অন্যতম নতুনত্ব হল বিশেষ করে এটি হার্ড এর উপর পরিবর্তন আসবে। এর মানে হল অ্যাপল আইফোন ৪এস দেখা গেছে স্পিড কমে গেছে। অ্যাপল আইফোন ৫, ৫সি এবং ৫এস ব্যবহারকারীরা তার চেয়ে বেশি সুবিধা পাবে। স্পীড ড্রপের ক্ষেত্রে কোন গ্যারান্টি থাকবে না। তবে যদি ঐতিহাসিক রিলিজে কোন নির্দেশনা থাকে তবে ৪এস ব্যবহারকারীদের নতুনত্বের জন্যে অপেক্ষা করতে হবে।

আপডেট বিলম্ব হওয়ার অন্য কারণ হল এর ব্যাটারি সমস্যা যা মুক্ত হওয়ার প্রথম কয়েক সপ্তাহ ধরে থাকে। সাধারণত এর প্রভাবটা পড়ে খুব অল্প সংখ্যক ব্যবহারকারীর উপর। দ্রুত ব্যাটারি ড্রেইন  অথচ এটি প্রত্যেক বড় ধরনের আইওএস অপারেটিং সিসটেমের রিলিজের সময় হয়ে থাকে। অ্যাপল এটি খুব দ্রুত সংশোধন করছে। কিন্তু ফোনের উপর অধিক নির্ভরশীল এমন ব্যবহারকারীদের অপেক্ষা করতে হবে আপডেটিং এর সময় অন্যকোন সমস্যা দেখা দেয় কিনা। কারণ এটা হল কনটেন্ট আপডেট এবং কোনো সিকিউরিটি আপডেট না। এটি এমন হবে যা নতুন নিরাপত্তা ঝুঁকিকে পরিচিত করাবে। আর ঝুঁকিগুলো খুঁেজ পাওয়া মাত্র এটি সংশোধন করবে। তবে ব্যবসায়ী ব্যবহারকারীদের যাদের গুরুত্বপূর্ন অথবা ব্যক্তিগত ডাটা ফোনে থাকে তাদের অ্যাপল রিলিজ প্রথম সিকিউরিটি প্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। সাধারণত ব্যাপক রিলিজের পর কয়েক দিন।

অবশেষে যদি এমনও হয় আইওএস৮ পুরাতন সর্বোচ্চ কার্যক্ষমতা নিয়ে নতুন ফিচার রিলিজ করে তবে নতুন প্রাযুক্তিক পরিবর্তন ব্যবহারকারীদের অসস্তিকর করে তুলবে। এটি প্রথমত অফিস পরিবেশকে প্রভাবিত করবে। মানসম্মত যন্ত্রাংশ হিসেবে অ্যাপল আইফোন অভিযোজন পাশাপশি পরিকল্পনা এবং সিদ্ধান্ত গ্রহনের ক্ষেত্রে আরো সচেতন হতে হবে। যদি পরিবারের সদস্যরা আপডেটের উপর পরিকল্পনা নেয় তবে নতুন সিসটেমকে ব্যবহার করার মতো দক্ষতা তাদের প্রয়োজন হবে।

সর্বপরি,  আপডেটকে চিহ্নিত করতে অ্যাপল সঠিক অবস্থানে আছে যদিও আপনি আপনার অ্যাপল আইফোনকে ভিডিও গেইমস, ক্যামেরা অথবা  কর্মক্ষমতা জন্যে ব্যবহার করবেন তবুও আপনি নতুন সিস্টেমে নিশ্চিত ইতিবাচক পরিবর্তন খুঁজে পাবেন। এর পরও কিছু নগন্য নেতিবাচক আপডেট থাকতে পারে তবে এটি নতুন ফিচার দিয়ে ব্লক করা যাবে এব অধিকাংশ সমস্যা আপডেটকে বিলম্বিত করে এড়িয়ে যাওয়া যাবে। অ্যাপল মোবাইল ফোনের ক্ষেত্রে তাদের আগ্রহ দেখিয়েছে যা এখানে বিদ্যমান এবং তাদের ঘন ঘন ফিয়েচার প্যাকড আপডেট এটাই প্রমাণ করছে অ্যাপল আইফোন সেলুলার জগতে শীর্ষে থাকবে।

 

নিউজলেটারে সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments