কিভাবে সবচেয়ে ভালো দামে আপনার ফোনটি বিক্রি করবেন

Share

আপনার কাছে পুরাতন ইলেক্ট্রনিক জিনিসপত্র থাকলে আপনি হয়তো চাচ্ছেন সেগুলো বিক্রি করে ভাল দাম পেতে। বিশেষ করে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন পূনরায় বিক্রি অনেকটাই জনপ্রিয়। কারণ, বিশ্বের প্রায় সকল মানুষই প্রতিনিয়ত নতুন ডিভাইস ব্যবহার করতে চায়। এজন্য অবশ্যই আপনাকে কিছু গুরুত্বপূর্ন তথ্য মনে রাখতে হবে যদি আপনি আপনার ডিভাইসটি থেকে দ্রুত পরিত্রান পেতে চান এবং তা বিক্রি করে সর্বোচ্চ ভাল দাম পেতে চান। এখানে কিছু টিপস দেওয়া হল যা আপনার ফোনটি অন্যের কাছে ভালো দামে বিক্রি করার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিবে।

নির্বাচন করুন কোন ফোনটি বিক্রি করতে চাচ্ছেন:

আপনার কাছে যদি একাধিক মোবাইল ফোন থাকে যেগুলো আপনি আর ব্যবহার করবেন না, তাহলে সেগুলো নিয়ে আর চিন্তা করতে হবে না। কিছু ক্ষেত্রে মানুষ তার ফোনটি ভেঙে ফেলে অথবা পানিতে ছুড়ে ফেলে। ছুড়ে ফেলার চেয়ে রেখে দেওয়ায় ভালো। যাইহোক, মানুষ প্রতিনিয়ত তাদের ফোনকে আপগ্রেড করতে চায় কারণ প্রযুক্তিও প্রতিনিয়ত আপগ্রেড হচ্ছে। আর মানুষ সবসময় সর্বাধুনিক মোবাইল ফোনটিই ব্যবহার করতে চায়। আপনি যেই পরিস্থিতিতেই থাকেন না কেন সবার আগে আপনাকে যা করবেন তা হলো নির্দিষ্ট করুন আপনি কোন ফোনটি বিক্রি করতে চাইছেন।

ফোনের মূল্য নির্ধারন করুন:

যে ফোনটি বিক্রি করে আপনি অতিরিক্ত টাকা পেতে চাইছেন সেটি নির্দিষ্ট করার পর আপনাকে ঠিক করতে হবে আপনি কত টাকায় ফোনটি বিক্রি করবেন। যদি আপনি বেশি দামে মোবাইল ফোনটি বিক্রি করার চেষ্টা করেন তবে দেখা যাবে এটার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন, কারন বেশি দামের কারনে সহযে বিক্রি করতে না পারায় আপনার কাছেই অনেক দিন ধরে পড়ে থাকবে। বরং আপনার উচিত মোবাইলটির মূল্য নির্ধারণ করার আগে একই ধরনের অন্য মোবাইল গুলো কি দামে বিক্রি হচ্ছে সেটা জানাও গুরুত্বপূর্ণ। উদাহারণ স্বরূপ যেমন আপনার একটা অ্যাপল আই ফোন আছে যা মানুষ প্রকৃতপক্ষেই চায়। এর মানে এই যে আপনি এটি অনেক বেশী দামে বিক্রি  করতে পারবেন। দাম নির্দিষ্ট করার আগে চিন্তা করুন আপনার ফোন কতটা উপযোগী এবং কত দামে বিক্রি করা যাবে।

ভাঙা ডিভাইস ফেলে দিবেন না:

এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনার পুরাতন মোবাইলটি ভেঙ্গে গেলে এটি ছুড়ে ফেলে দেওয়া উচিত না। বিশ্বে অসংখ্য মানুষ আছে যারা মোবাইল পার্টসের জন্যে পুরাতন মোবাইল কিনতে আগ্রহী। তারা অবশ্যই আপনাকে ডিভাইসটির জন্যে ভালো দাম দিবে। যদি আপনার সনি ফোন থাকে তবে এমন অনেকে আছে যারা অন্য সনি ডিভাইসের পার্টস সংযোজনের জন্যে অথবা তাদের বর্তমান ডিভাইসে প্রতিস্থাপন করতে পার্টস কিনতে আগ্রহী। অনেকে তাদের ডিভাইসটি ভেঙে গেলে ছুড়ে ফেলে দেয়। এর মানে এই যে তারা বেশি দামে কেনা  কোনো জিনিস থেকে কিছু টাকা পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

আপনার ডিভাসটির কোথায় কোথায় বিক্রির চেষ্টা করবেন সেটি জেনে নিন:

যখন আপনি আপনার মোবাইলটি বিক্রি করবেন তখন সেগুলো বিক্রি করার বিভিন্ন ধরনের সুযোগ পাবেন। একটা অপশন হলো আপনার ফোনকে ক্লাসিফাইড সাইটে পোষ্ট করা। এর ফলে আপনার ভৌগলিক এলাকায় বসবাসকারী যাদের এই ডিভাইসের প্রতি আগ্রহ আছে তাদেরও দেখার সুযোগ করে দিবে। এটা আসলেই সত্য যে, যদি আপনার একটি নকিয়া ফোন থাকে অথবা অন্য কোন মডেল যেটি আপনার ভৌগলিক এলাকাকে নির্দিষ্ট করবে। এছাড়া মোবাইল ফোন বিক্রির ভালো স্থানগুলোতে আপনার ডিভাইসের বিজ্ঞাপন করতে পারেন যার মাধ্যমে এটির প্রতি অন্যের মনযোগ আকর্ষন করতে পারবেন। এর ফলে আপনার ফোনের  প্রতিযোগীতামূলক দাম তৈরি হবে এবং সবচেয়ে ভালো দামে আপনার ফোনটি বিক্রি হবার  সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

পরিস্কার দেখা যায় মোবাইলটি এমন একটি সুন্দর ছবি তুলুন:

আপনার ডিভাইসটি বিজ্ঞাপনে দেয়ার আগে এটি দেখতে ভালো আছে সেটি নিশ্চিত করা জরুরী। এটা যদি আপনি ভাঙা ডিভাইস বিক্রি করতে চান সেক্ষেত্রেও জরুরী। যদি আপনার ডিভাইসটির ছবি তুলে ক্রেতাদের দেখার জন্যে আপলোড করেন তবে ছবিতে সেটি দেখতে ভালো হলে সেটি ভালো দামে বিক্রি হবার সম্ভাবনা আরো বেড়ে যাবে। এমনকি যদি আপনার একটি স্যামসাং ফোন থাকে যাতে আঁচড়, দাগ অথবা অন্যান্য খুৎ থাকে তবে ধুলামুক্ত করে সেটির ছবি নিবেন এবং অনলাইনে পোষ্ট করবেন। এটি সম্ভাব্য ক্রেতাদের অনেক বেশি আগ্রহী করবে এবং আপনার ফোনের চাহিদা তাদের কাছে আরো অনেক বেড়ে যাবে।

গুরুত্বপূর্ন ফিচারের তালিকা করুন:

আপনার ফোনকে পরিষ্কার করার পর, নিশ্চিত হয়ে নিন যে সেটির যেসব ফিচার আছে সেগুলোর যথাযথ তালিকা করা হয়েছে। প্রত্যাশিত ক্রেতা জানতে চাইবে ফোনে ক্যামেরা আছে কিনা অথবা এই আধুনিক প্রযুক্তিগত সুবিধা ছাড়াই এটি একটি পুরাতন ডিভাইস। তাছাড়া আপনি নিজেও চান আপনার ডিভাইসে নির্দিষ্ট কোন কোন ফিচার আছে সেগুলোর তালিকা করতে। উদাহরণ স্বরূপ যদি আপনার একটি ব্ল্যাকবেরি ফোন থাকে যাতে বিবিএম কাজ করে তাহলে সেটি যারা মেসেজ আদান প্রদান করে তাদেরকে আগ্রহী করবে।

নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার ফোনের সব কনটেন্ট মুছে ফেলা হয়েছে:

আপনার ডিভাইসটি প্যাক আপ করার আগে এবং এটি নতুন মালিকের কাছে হস্তান্তর করার আগে নিশ্চিত হোন যে আপনি ডিভাইসে থাকা সকল পুরাতন কনটেন্ট মুছে ফেলেছেন। প্রথমে যেটি করবেন তা হলো কন্টাক্ট নাম্বারগুলো  মুছে ফেলবেন এবং নিশ্চিত হবেন যে নতুন মালিক আপনার বন্ধুদের কোন তথ্য পাবে না। এরপর সকল ব্যক্তিগত তথ্য মুছে ফেলবেন যাতে আপনি ব্যক্তিগত বিষয় প্রকাশের ঝুঁকি থেকে মুক্ত থাকবেন। আপনার ফোনে এ্যাপস, ইমেল, ডকুমেন্টস, মিউজিক, ফটো এবং আরো যা আছে সবকিছু ডিভাইস থেকে পরিস্কার করে দিন। যদি আপনার ফোনটি এইচটিসি ফোন হয় তবে এগুলো মুছে ফেলা একেবারে সহজ; ফোনটির ফ্যাক্টরি সেটিংসে গিয়ে ডিভাইসকে রিসেট করলে সব মুছে যাবে।

যত্নের সাথে প্যাকিং করুন:

আপনার ফোনটি একটি প্রযুক্তিগত ডিভাইস একারণে লোকজন আগের কন্ডিশনেই এটি কিনতে চাইবে। যদি আপনি অনলাইনে আপনার ডিভাইস বিক্রি করতে চান নিশ্চিত হোন যে সময় নিয়ে ভালোভাবে যত্ন সহকারে এটি প্যাক করা হয়েছে। এটি হতে পারে অতিরিক্ত শিপিং পিনাটস যোগ করে অথবা স্টাইরোফোম ব্যবহার করে। নিরাপত্তার পরিমান আপনি যা যোগ করবেন তা আপনার উপর নির্ভর করবে, কিন্তু মনে রাখবেন যে লোকটি আপনার মোবাইল ফোনটি কিনছেন তিনি সন্তুষ্ট না হলে এটি ফেরত দিতে পারে।

আপনার পুরাতন মোবাইল ফোন বিক্রি করা মানে অব্যবহৃত ইলেক্ট্রনিক্স থেকে কিছু অর্থ পাওয়ার অন্যতম মাধ্যম। কিন্তু ডিভাইসটি বিক্রির আগে সবচেয়ে ভালো দাম পেতে এখানে বর্ণিত টিপসগুলো আপনাকে বিবেচনায় রাখতে হবে।

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments