Bikroy

Bikroy.com -এ কিভাবে আপনার পণ্য দ্রুত বিক্রি করা যায়?

আপনি কি কিছুটা বাড়তি হাতখরচ কিংবা অন্য কাজের পাশাপাশি আলাদা একটা উপার্জন করার কথা ভাবছেন? বিভিন্ন ধরণের অনলাইন মার্কেটপ্লেসে আপনার যেকোনো ধরণের পণ্য বিক্রি করে আপনি এ রকম উপার্জন করতে পারবেন। আপনার অব্যবহৃত কিংবা অপ্রয়োজনীয় কিছু পণ্য সামগ্রী এবার ঘর থেকে বিদায় করে দিন, অথবা নিয়মিতভাবে কিছু পণ্য বিক্রি করার মাধ্যমে নিজের জন্য বাড়তি কিছু উপার্জনের ব্যবস্থা করুন!

Bikroy.com-এর মত বিভিন্ন জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস চালু হওয়ার সুবাদে ইদানিং দেশে অনলাইনে পণ্য কেনা ও বিক্রি করার চলটা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অবাক করার বিষয় হচ্ছে অনলাইনে পণ্য বিক্রি করার আইডিয়াটা এখনও অনেকের কাছেই বেশ ঝামেলাবহুল কাজ বলে মনে হয়। অথচ এই কাজটিই আপনার জন্য হতে পারে অত্যন্ত সহজ এবং সাবলীল! 

আজ আমরা বাংলাদেশের অন্যতম সেরা অগ্রগামী মার্কেটপ্লেস ব্যবহার করে কীভাবে পণ্য দ্রুত বিক্রি করা যায়, সে ব্যাপারে আলোচনা করবো এবং যারা টাকা কামানোর জন্য সহজ ও সাবলীল পথ খুঁজছেন তাদের জন্য এই পদ্ধতিটি আরও সহজ করে তোলার কিছু কার্যকরী টিপসও উল্লেখ করবো।

বাংলাদেশে নামকরা অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলো কীভাবে কাজ করে

অনলাইন মার্কেটপ্লেসের উদ্দেশ্য হচ্ছে নতুন কিংবা ব্যবহৃত পণ্য কেনা ও বেচার সুবিধা স্থানীয় মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া। সাধারণ মানুষ এই সব সাইটের সাহায্যে অনলাইন মিডিয়ার বিশাল দুনিয়া এবং এর সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে লোকাল মানুষজনের কাছে তাদের পণ্য বিক্রি করার সুযোগ পান। এখানে হিসাব খুবই সহজ – একজন বিক্রেতা যেকোনো একটি পণ্য একটি নির্দিষ্ট দামে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে সাইটে একটি বিজ্ঞাপন পোস্ট করেন। দেশব্যাপী অজস্র আগ্রহী ক্রেতারা তার এই বিজ্ঞাপনটি দেখতে পান। আর শেষ পর্যন্ত যার সাথে বিক্রেতার অফার এবং চাহিদার মিলে যায়, বা দু’জন মিলে যখন কোনো সমঝোতায় চলে আসেন, তখনই পণ্যটি দু’জনের ঠিক করা দামে ক্রেতা কিনে নিতে পারেন।

কত সহজ, তাই না?

বাংলাদেশে অনলাইন মার্কেটপ্লেস ব্যবহার করে বেচা কেনা করাটা একদিকে যেমন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে, অন্যদিকে অনেক ব্যবহারকারীদের মনে এই ব্যাপারে কিছু প্রশ্ন তৈরি হয়েছে, যেমনঃ

  • কীভাবে আমার পণ্য অনলাইনে দ্রুত বিক্রি করতে পারব?
  • নির্ভরযোগ্য ক্রেতাদের খুঁজে পাওয়ার জন্য কোথায় বিজ্ঞাপন পোস্ট করতে পারি?
  • অনলাইনে পণ্য বিক্রি করা কি সত্যিই নিরাপদ?
  • আমার পণ্যের জন্য সেরা দাম কোথায় পাবো?
  • আমার লেনদেনগুলো ঠিক কতটা নিরাপদ?

ফলস্বরূপ এইসব বিক্রেতাদের কাছে তাদের পণ্য বিক্রি করার জন্য একটি নির্ভরযোগ্য এবং বিশ্বস্ত প্ল্যাটফর্ম বাছাই করে নেওয়াটা এত বেশি জরুরি। একইভাবে ক্রেতারাও নিশ্চিত হতে চান যে তারা সত্যিকারের বিক্রেতাদের কাছ থেকেই পণ্য কিনছেন আর তাদের ঠকানো হচ্ছে না।

উপরে উল্লেখিত সব প্রশ্নের সহজ সরল এবং নিশ্চিত সমাধান হচ্ছে Bikroy.com! একটি বিশ্বস্ত, নির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদ অনলাইন মার্কেটপ্লেস হিসেবে বাংলাদেশে ইতোমধ্যে Bikroy বেশ সুনাম কুড়িয়ে নিয়েছে।

Bikroy.com-এ মূলতঃ কোন ধরণের পণ্য বিক্রি করা যায় বা বিক্রি হয়?

এই প্রশ্নের উত্তর এক কথায় দেওয়া সম্ভব নয়। এর কারণ হচ্ছে Bikroy-এ প্রতিনিয়ত বিক্রি করা হচ্ছে বিভিন্ন ধরণের বিপুল সংখ্যক পণ্য। সামান্য একটা কম্পিউটার মাউসের মত ছোট-খাটো জিনিস থেকে শুরু করে বড় ও মূল্যবান সম্পদ যেমন, গাড়ি ও প্রপার্টি পর্যন্ত বিক্রি করা হচ্ছে। তবে হ্যাঁ, যেহেতু এটা একটা অনলাইন মার্কেটপ্লেস, তাই প্রচলিত বেশ কিছু পণ্য এখানে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে বিক্রি হয়ে থাকে, যেমন- মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, ল্যাপটপ, টিভি ইত্যাদি।

বড় মাপের আসবাব থেকে শুরু করে হালকা ওজনের ফ্যাশন আইটেম, যে পণ্যই হোক না কেন ক্রেতাদের চাহিদা রয়েছে এমন সবকিছুই বিক্রি হচ্ছে Bikroy-এ। এর কারণটা খুবই সোজা – এটা অনেক বেশি সহজ এবং দ্রুততর! বিক্রেতারা খুব সহজ ভাবে যেসব পণ্য বিক্রি করতে চান, সেগুলোর কিছু ছবি তুলতে পারেন, এবং Bikroy -এ সেগুলোর বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। আর বিশাল এই মার্কেটপ্লেসে এই বিজ্ঞাপনটি বিপুল সংখ্যক ভিজিটরদের চোখে পড়ে। অনলাইনে বিজ্ঞাপন দেয়ার পর খুব শীঘ্রই পণ্যটি বিক্রি হয়ে যাওয়ার যে আনন্দ, সেটাই বিক্রেতাদের অনলাইন ব্যবসার প্রতি আরও বেশি আগ্রহী করে তোলে।

Bikroy-এর সাহায্যে আপনি এলাকা অনুযায়ী পণ্য বিক্রি করতে পারবেন

Bikroy.com-এ পোস্ট হওয়া বিজ্ঞাপনগুলো কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ব্যবহার করে দেখা যায়। এমনকি চাইলে আপনার অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস মোবাইল ফোনে Bikroy-এর অ্যাপ নামিয়ে নিয়ে বিজ্ঞাপনগুলো দেখতে পারেন। আপনি খুব সহজেই বেশ কিছু ছবি ও বিবরণসহ একটি বিজ্ঞাপন পোস্ট করতে পারবেন, এবং আপনার লোকেশন বা এলাকা ট্যাগ করে দিতে পারবেন। তারপর ঐ এলাকায় যত আগ্রহী ক্রেতারা আছেন, তারা আপনার এলাকায় ওই পণ্যটি খোঁজার সময় আপনার বিজ্ঞাপনটি দেখতে পারবেন। এতে করে আপনি এমন সব লোকাল ক্রেতাদের পেয়ে যাবেন, যারা আপনার পণ্যটি কিনতে রাজি হবেন এবং আপনার সাথে তুলনামূলক বেশ দ্রুত দেখা করে দাম দিতে ও পণ্যটি নিয়ে নিতে চাইবেন। এভাবে একদিকে যেমন আপনার সময় অনেক বেঁচে যাবে, তেমনি আপনাকে ক্রেতার কাছে পণ্য পাঠানোর ব্যাপারেও খুব একটা দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

আপনার কি জরুরি ভিত্তিতে কোন পণ্য বিক্রি করার দরকার? Bikroy-এ বিজ্ঞাপন দিন ‘আর্জেন্ট’ অ্যাড!

যেসব বিক্রেতারা তাদের পণ্য Bikroy.com-এ জরুরি ভিত্তিতে বিক্রি করতে আগ্রহী, তাদেরকে আর বিজ্ঞাপন কোনো ক্রেতার চোখে পড়া এবং তাদের সাথে যোগাযোগ করার আশায় অপেক্ষা করতে হবে না। এসে গেছে Bikroy-এর নতুন প্রমোটেড অ্যাড ফিচার, যেখানে বিক্রেতারা ‘আর্জেন্ট’ হিসেবে চিহ্নিত করে তাদের বিজ্ঞাপন পোস্ট করতে পারবেন।

যেসব পণ্য ‘আর্জেন্ট’ হিসেবে চিহ্নিত করা হবে, সেগুলোর উপরে ডানদিকে একটি লাল রঙের ট্যাগ সহ দেখা যাবে। আর এভাবেই সেগুলো আগ্রহী ক্রেতাদের কাছে জরুরি ভিত্তিতে হাইলাইট করে তুলে ধরা হবে। ফলে সাধারণ বিজ্ঞাপনের তুলনায় আপনার বিজ্ঞাপনটি ক্রেতাদের চোখে আরও বেশি লক্ষণীয় হয়ে উঠবে।

উদাহরণ স্বরূপ, নিচে উল্লেখিত গ্রাফিক্স ছবি গুলোতে আমরা দেখিয়েছি, কীভাবে Bikroy -এ পোস্ট হওয়া অন্যান্য পণ্যের বিজ্ঞাপনের মধ্যে ‘আর্জেন্ট’ চিহ্নিত পণ্যগুলো আলাদাভাবে বোঝা যায়ঃ

sell urgent

বিজ্ঞাপনের তালিকার মধ্যে ‘আর্জেন্ট’ চিহিত পণ্যগুলোর বিজ্ঞাপনের উপরে ডান দিকে লাল রঙের ট্যাগ

টপ অ্যাড, বাম্প আপ এবং আর্জেন্ট প্রমোশনের মধ্যে মূল পার্থক্য

বিক্রির জন্য পণ্যগুলোকে আরও বেশি প্রচার করার জন্য Bikroy.com তার বিক্রেতাদের জন্য ৩ ধরণের প্রিমিয়াম সার্ভিস অফার করে থাকে। চলুন দেখে নেয়া যাক এই ৩ ধরণের সার্ভিসের মধ্যে কী কী আলাদা রয়েছেঃ

টপ অ্যাড

একটি নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপনকে মানুষের চোখে বেশি বেশি পড়া এবং ভিউ বাড়ানোর উদ্দেশ্যে এই অ্যাডগুলোকে টার্গেট করা হয়। আর তাই যেসব বিক্রেতারা এই সুবিধাটি ব্যবহার করেন, তাদের বিজ্ঞাপনগুলো আগ্রহী ক্রেতাদের সামনে সবচেয়ে উপরে ফিচার করা হয়। ফলে তাদের অ্যাডগুলো স্বাভাবিকের চেয়ে ১০ গুণ বেশি ভিউ পায়।

বাম্প আপ

আগ্রহী ক্রেতাদের থেকে আরও বেশি পরিমাণে কল আসা ও পণ্য বিক্রির সম্ভাবনা বাড়ানোর জন্য এই অ্যাডগুলোকে টার্গেট করা হয়। যেসব বিক্রেতারা এই ফিচারটি ব্যবহার করেন, তাদের বিজ্ঞাপনগুলো প্রতিদিন অন্যান্য বিজ্ঞাপনের চেয়ে উপরে তুলে দেয়া হয়। যাতে করে তাদের অ্যাডগুলো প্রতিদিন নতুন করে সকলের চোখে একবার পড়ে এবং তাদের পণ্যের জন্য আরও অধিক সংখ্যক আগ্রহী ক্রেতা তারা পেয়ে যান।

আর্জেন্ট

ফিচার করা বিজ্ঞাপনগুলোর মধ্যে আর্জেন্ট অ্যাডগুলো বেশি পরিমাণে আগ্রহী ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে। যেসব বিক্রেতারা এই ফিচারটি ব্যবহার করেন, তারা দেখবেন যে তাদের অ্যাডগুলো অনেক বেশি দ্রুত ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারছে এবং এভাবেই তাদের পণ্যটি অনেক দ্রুত বিক্রিও হয়ে যাবে।

opup bumpup

Bikroy.com এর মার্কেটপ্লেসে যে ৩ ধরণের অ্যাড প্রমোশন করা যায়

একজন বিক্রেতা হিসেবে এই বাড়তি প্রমোশনাল ফিচারগুলো ব্যবহার করে ব্যাপক পরিমাণে লাভবান হতে পারেন। এতকিছুর পরও আপনার বিজ্ঞাপনটির কার্যকারিতা আরও বাড়ানোর জন্য এই ৩ ধরণের প্রমোশনের মধ্যে কয়েকটি কম্বাইন করে অর্থাৎ একই সাথে ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি সেরা ফলাফল পেতে পারেন।

স্পটলাইট

উচ্চ সারির ও দামি পণ্যের জন্য সবগুলো বিজ্ঞাপনের মাঝে একটি প্রিমিয়াম স্পট নিশ্চিত করতে আপনি ব্যবহার করতে পারেন স্পটলাইট। এইরকম বিশেষ প্রমোশন করার মাধ্যমে Bikroy-এর ক্রেতাদের কাছ থেকে তাৎক্ষণিক মনোযোগ ও আকর্ষণ পাওয়া সম্ভব। এখানে মূল লক্ষ্য হচ্ছে ভালো ও মানসম্মত ছবি ব্যবহার করা এবং ক্রেতাদের দৃষ্টি যেন আপনার পণ্যের উপর পড়ে তা নিশ্চিত করা।

স্পটলাইট Bikroy.com

‘স্পটলাইট’ প্রমোশন সহ যেকোনো বিজ্ঞাপনের জন্য একটি বিশেষ প্রিমিয়াম অবস্থান

আর্জেন্ট প্রমোশন

Bikroy.com-এর সকল বিক্রেতাই তাদের বিজ্ঞাপনের জন্য এই ‘আর্জেন্ট’ প্রমোশন ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি যদি আপনার পণ্যটি অতি সত্বর Bikroy.com এ বিক্রি করতে চান তাহলে ‘আর্জেন্ট’ ব্যানার সহ এখনই আপনার পণ্যটি বিক্রির জন্য পোস্ট করুন!

Bikroy.com-এ বেচা-কেনার সময় নিরাপত্তা ব্যবস্থা

বাংলাদেশের অনলাইন মার্কেটপ্লেস ইন্ডাস্ট্রিতে সম্প্রতি বিশাল এক প্রবৃদ্ধি ঘটে গেছে এবং বিগত দশকে যেসব সুযোগ আমাদের সামনে এসেছে, সেগুলো একটা সময় আমাদের কল্পনারও বাইরে ছিল। তবে একই সাথে নিত্যনতুন বিভিন্ন প্রতারণামূলক কর্মকান্ডও ব্যাপক হারে বেড়ে গিয়েছে।

আমাদের দেশের সরকার এবং তার আইন প্রণয়ন অধিদপ্তর অনলাইনে প্রতারণা দূর করতে নিরাপত্তার উপর কঠোর পদক্ষেপ ও নিয়ন্ত্রণ রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও Bikroy.com ক্রেতা ও বিক্রেতাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য এবং অনলাইন মার্কেটপ্লেসকে আরও সুরক্ষিত করে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে ও সেই উদ্দেশ্যে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।

বিক্রেতাদের জন্য Bikroy একটি একাউন্ট ভেরিফিকেশন পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকে, যাতে করে এই মার্কেটপ্লেসে বিজ্ঞাপন দেয়া সকল বিক্রেতাদের ফোন নাম্বার ও জরুরি তথ্য যাচাই করা সম্ভব হয়। এতে করে ভিন্ন মোবাইল ফোন নাম্বার ব্যবহার করে কোনো রকম নকল কিংবা প্রতারণামূলক বিজ্ঞাপন পোস্ট হওয়া বা ক্রেতাদের সামনে আসার কোনও সম্ভাবনাই আর থাকে না।

এর পাশাপাশি Bikroy বেশ কঠোরভাবে তাদের মার্কেটপ্লেসে সব ধরনের অবৈধ, রেপ্লিকা ও ক্লোন পণ্য বিক্রি করা বা বিজ্ঞাপন দেওয়া নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। এর ফলস্বরূপ আন্তর্জাতিক বৌদ্ধিক সম্পত্তি আইন অনুযায়ী বিভিন্ন নকল পণ্য, যেমন রেপ্লিকা ফোন ইত্যাদি জিনিস এই প্ল্যাটফর্মে বিক্রি করা একদম নিষিদ্ধ ও অবৈধ হয়ে গেছে।

Bikroy.com-এ পণ্য বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দেয়ার ক্ষেত্রে করণীয় ও বর্জনীয় কাজ

আপনি যদি Bikroy.com -এ পণ্য বিক্রি করে সফল ও লাভবান হতে চান, তাহলে আপনার পোস্ট করা বিজ্ঞাপনের জন্য আগ্রহী ক্রেতাদের আকৃষ্ট করে আনতে সাহায্য করবে নিচের কিছু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম, যা আপনাকে অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

  • আপনার ফিচার করা ছবিতে কোনো লেখা বা টেক্সট ব্যবহার না করার চেষ্টা করুন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে Bikroy.com একটি পণ্যের ফিচারড ইমেজ হিসেবে লিখাসহ কোনো ধরণের ছবি গ্রহণ করে না। একদম প্রথম ছবিটি কোনও রকম লিখা বা অপ্রয়োজনীয় অংশ ছাড়া স্পষ্ট ও পরিচ্ছন্ন হলে সেটাকে দেখতে অনেক বেশি প্রফেশনাল মনে হয়। আর গ্রাহকরাও এ ধরণের ছবিতে শুধুমাত্র পণ্যের উপর বেশি মনোযোগ দিতে পারেন।
  • আপনার আগ্রহী ক্রেতাদের জন্য বিজ্ঞাপনের টাইটেলটি সংক্ষিপ্ত এবং সহজ রাখার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোন সিম্বল বা প্রতীক, বিশেষ অক্ষর কিংবা ইমোজি এগুলো আপনার বিজ্ঞাপনের টাইটেলে দেয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। চেষ্টা করুন বিশেষ করে পণ্যটির নাম, ব্র্যান্ড ও দামকে বেশি ফোকাস করতে।
  • অন্যান্য ছবি, যেমন দ্বিতীয়, তৃতীয় কিংবা চতুর্থ ছবিতে আপনি চাইলে টেক্সট বা লিখা ব্যবহার করতে পারবেন। ছবির আকার ও জায়গার তুলনায় লিখার সাইজ ও রেশিও ২০% এর মত ছোট রাখার চেষ্টা করুন। ফলে আপনার পণ্যের কোড, বিবরণ, কোম্পানির নাম, ফিচার ইত্যাদি যে তথ্যই হোক না কেন, সেটাকে ছবির আকারের সাথে সমানুপাতিক আকৃতিতে রাখার চেষ্টা করুন। খেয়াল রাখুন যেনো ছবির মধ্যে পণ্যের চেয়ে লিখাগুলো বেশি বড় বা প্রভাবশালী হতে না পারে। আসলে এই নিয়মের পেছনে তাৎপর্য হচ্ছে, যেন লিখাগুলো ছবিটির ভাবমূর্তি নষ্ট না করে দেয়। যেকোনো ছবিতে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ও বড় বড় লিখা দেয়া থাকলে সচরাচর ছবির মূল অংশ অর্থাৎ পণ্যটির দিকে মানুষের নজর ঠিক মত পড়ে না, বা তারা ছবিটি এড়িয়ে যান। ফলে আপনার বিজ্ঞাপন দেয়ার আসল উদ্দেশ্যটাই বৃথা হয়ে যায়।

how to post an ad

how to post an ad

  • ছবিতে টেক্সট বা লিখা দেয়ার সময় এমন কোন ফন্ট ব্যবহার করার চেষ্টা করুন, যা সহজেই পড়া ও বোঝা যায়। অতিরিক্ত উজ্জ্বল, ছবির উপর উঠে যাওয়া, বিপরীত ধর্মী রঙ কিংবা খুব ছোট বা খুব বড় আকারের টেক্সট ব্যবহার করা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।

যপনি যদি কোনো পণ্য খুব দ্রুত বিক্রি করত চান, তাহলে এখনই একজন ভেরিফাইড বিক্রেতা হওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মার্কেটপ্লেসে আপনার বিজ্ঞাপনটি পোস্ট করে ফেলুন!

Bikroy.com-এ ক্রেতাদের জন্য কিছু জরুরি টিপস

আপনি হয়ত সকলেই মানবেন যে, দেশের যেকোনো জায়গা থেকে মানসম্মত পণ্য পাওয়া ও দরদাম করে কেনার জন্য অন্যতম সেরা একটি মাধ্যম হচ্ছে একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস। অতএব আমাদের প্রতিবেদনটি শেষ করার আগে আমরা আপনার জন্য কিছু টিপস রেখে যেতে চাই, যদি আপনি Bikroy.com থেকে কোনো পণ্য কেনার চিন্তা করে থাকেন।

আজ আমরা Bikroy.com এ পণ্য বিক্রি করার ব্যাপারে অনেক বেশি গুরুত্ব দিয়ে আলাপ করেছি। তাই আপনারও অধিকার রয়েছে এই অনলাইন মার্কেটপ্লেসে কোন কিছু কেনার ব্যাপারে টুকিটাকি কিছু টিপস পাওয়ার। যেকোনো পণ্য কেনার সময় যেসব সেরা উপায় আপনার কাজে আসতে পারে সেগুলো নিচে উল্লেখ করছি। কারণ আমরা চাই যে আপনি একজন ক্রেতা হিসেবে নিচের টিপসগুলো অনুসরণ করে লাভবান হতে পারেনঃ

  • আপনি যদি কোনো পণ্য খুব তাড়াতাড়ি নিজের বাসায় নিয়ে আসতে চান, তাহলে এমন একজন বিক্রেতার বিজ্ঞাপন খুঁজুন যিনি আপনার সাথে একই এলাকায় কিংবা কাছাকাছি কোথাও থাকেন। আমাদের ‘লোকেশন’ ফিল্টারটি ব্যবহার করুন এবং আপনার পছন্দের এলাকা থেকে পোস্ট হওয়া বিক্রির জন্য পণ্যগুলো খুঁজে নিন।
  • আপনার চাহিদা অনুযায়ী সার্চটি নিখুঁত ও কার্যকরী করার জন্য সবগুলো ফিল্টারের সদ্ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। চূড়ান্তভাবে কোনো কিছু কেনার সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে অবস্থান, দাম, রেটিং ইত্যাদি বিভিন্ন ফিল্টার ব্যবহার করে আপনার মনের মত পণ্যটি খুঁজে নিন।
  • আপনি যদি এমন কোন পণ্য দেখেন যা আপনার পছন্দ, কিন্তু সেটা বিক্রি হয়ে গেছে, তাহলে বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে দেখুন। তাহলে আপনি জেনে যাবেন পরবর্তীতে ঐ পণ্যটি আবার কবে কেনার সুযোগ পাওয়া যাবে।
  • যদি পণ্যের দাম আলোচনা সাপেক্ষ হয়, তাহলে অবশ্যই আপনার পক্ষ থেকে দরদাম করার চেষ্টা করুন। শুধুমাত্র যেই দাম লিখে পণ্যের বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে, সবসময় আপনাকে যে সেই দামেই সেটা কিনতে হবে এমন কোনো কথা নেই। আপনার পক্ষ থেকে একটা ভালো দাম অফার করুন। কেননা একটু ভালো একটা ডিল পেতে চাইলে, সেখানে দোষের কিছু নেই, যতক্ষণ পর্যন্ত আপনি মার্জিত ও প্রফেশনাল ভাবে সেটা চাইছেন।
  • অনলাইনে বিজ্ঞাপনগুলো প্রতি মিনিটেই আপডেট হতে থাকে। তাই সার্চ করে না পেলে কিছুক্ষণ পর আবার চেক করে দেখুন। আপনি যদি কোনো পণ্য কিনতে চান, তাহলে সেটা মাত্র একবার খুঁজে ফিরে যাওয়াটা বোকামি।
  • যে পণ্যটি আপনি কেনার কথা ভাবছেন, সেটার উল্লেখ করা দাম সব সময় অন্তত দুই বার করে চেক করুন। আপনার পরিচিত কোন বন্ধুর কাছে খোঁজ নিন, অথবা অনলাইনে অন্য কোথাও সেই পণ্যের দাম দেখে যাচাই করে নিন।
  • ক্যাশ টাকার লেনদেনই সবচেয়ে নিরাপদ। তবে আপনার ক্রয় করা পণ্যের দাম পরিশোধ করার সময় সতর্ক থাকুন এবং আপনার পেমেন্ট এর রিসিট বা প্রমাণ রাখতে ভুলবেন না।
  • যেকোনো পণ্য কিংবা বিক্রেতার ব্যাপারে আপনার মনে যদি কোনও রকম সন্দেহ থাকে, তাহলে সোজা সেই ডিল থেকে সরে আসুন। এমন কোন পণ্যের জন্য নিজেকে ঝুঁকির মুখে ফেলবেন না, যা চাইলেই দুই একদিন পর আবারও খুঁজে পাওয়া সম্ভব।
  • আপনি যদি কোন বিক্রেতার দ্বারা অপমান কিংবা বিপদের শিকার হন, তাহলে Bikroy.com এর কর্তৃপক্ষের কাছে অবশ্যই সেই বিক্রেতার নামে রিপোর্ট বা অভিযোগ করুন। আপনার কিংবা অন্য কোনো গ্রাহক যেন ভবিষ্যতে কখনও একই রকম ঝামেলা বা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে না পড়েন, সেই ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে আমরা সব সময়ই সচেতন।

উপসংহার

আশা করি আমাদের আজকের প্রতিবেদনটির মাধ্যমে আপনাকে অনলাইনে পণ্য বিক্রি করার ব্যাপারে সম্পূর্ন একটি গাইডলাইন দিতে পেরেছি। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস হচ্ছে Bikroy.com। সারা দেশে যদি এমন কোনো জায়গা থাকে যেখানে আপনি সবচেয়ে দ্রুত ও কার্যকরভাবে আপনার পণ্য গুলো বিক্রি করতে পারবেন, তবে সেটা এখানেই!

বাংলাদেশের সবগুলো বৃহত্তর শহর এবং ছোট এলাকাগুলোর থেকে বিজ্ঞাপন ক্যাটাগরি অনুযায়ী বিভক্ত থাকার ফলে আপনি সকলেই Bikroy.com-এ শুধুমাত্র আপনার পণ্য বিক্রি করার জন্যই নয়, বরং ভেরিফাইড বিক্রেতাদের কাছ থেকে পণ্য কেনার নিশ্চয়তাও এখানে পাচ্ছেন।

আজকের জন্য এটুকুই রইলো। মনে রাখবেন, বিক্রি করে দেয়াই সব সময় আপনার একমাত্র উপায় নয়। বরং মাঝে মাঝে আপনার অবাঞ্ছিত বা অব্যবহৃত পণ্যগুলো একসাথে সংগ্রহ করে সুবিধা বঞ্চিত ও অভাবী মানুষগুলোর মধ্যেও বিতরণ করে দিতে পারেন। কেননা আপনার অপ্রয়োজনীয় পণ্য কারো না কারো কাছে অত্যন্ত দামি হতে পারে।

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

আরও দেখুন

অনুরূপ লেখা গুলো

Back to top button
Close
Close