২০১৯ সালে বাংলাদেশে ডেল ল্যাপটপের হালনাগাদ

ডেল কোম্পানির লেটেস্ট ল্যাপটপগুলো
Share

আমাদের দেশের সব প্রান্তে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির প্রবৃদ্ধির সাথে সাথে দেশব্যাপী ল্যাপটপের চাহিদাও বেড়েছে বহুগুণে। তবে আজকাল সব বাঘা বাঘা প্রতিদ্বন্দ্বীদের ভিড়ে টেক কোম্পানি ডেল মার্কেটপ্লেসে বেশ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। ডেল যে শুধুমাত্র নানা ধরণের ল্যাপটপই বিক্রি করছে তা না, বরং তারা গ্রাহকদের জন্য অফার করছে বিভিন্ন কনফিগারেশনের ডেস্কটপ কম্পিউটার, কম্পিউটারের বিভিন্ন পার্টস সহ আরো নানা রকমের পণ্য। যাই হোক, ধীরে ধীরে ডেস্কটপ ব্যবহারকারীরা তাদের কম্পিউটার ব্যবহারের অনড় ও স্থাবর অপশন থেকে সরে আসছেন এবং দিনকে দিন আরো অধিক মাত্রায় ল্যাপটপ ব্যবহার করায় অভ্যস্ত হয়ে উঠছেন। বিভিন্ন প্রফেশনাল ব্যক্তি, শিক্ষার্থী, এমনকি সাধারণ জনগনের জন্যও ল্যাপটপের ব্যবহার ধীরে ধীরে আরো বেশি গ্রহনযোগ্য হয়ে উঠছে।

বিশ্ব বাজারে ল্যাপটপের ইন্ডাস্ট্রি চক্রবৃদ্ধি হারে বেড়েই চলেছে, আর গ্রাহকরা চাচ্ছেন সবচেয়ে সহনীয় মূল্যে সম্ভাব্য সবচেয়ে সেরা মান ও স্পেসিফিকেশনের একটি ল্যাপটপ। এমনিতেই ল্যাপটপ কেনা কোনো অল্প টাকার মামলা নয়; আর যেই ল্যাপটপগুলোর দাম অস্বাভাবিক রকম কম, সেখানে ল্যাপটপের গুনগত মান ঠিক কতটা ভালো কিংবা সেটি কতদিন টেকসই থাকবে সে ব্যাপারে সন্দেহ রয়েই যায়। একদিকে যেভাবে মানুষ ধীরে ধীরে ডেস্কটপ কম্পিউটার থেকে সরে আসছেন এবং ল্যাপটপের দিকে ঝুঁকছেন, অন্যদিকে এসার, আসুস, কিংবা ডেলের মত কোম্পানিগুলোও গ্রাহকদের এই পরিবর্তনের দরুন মার্কেটে তৈরি হওয়া সুবর্ণ সুযোগটি লুফে নিচ্ছে। আমাদের আজকের প্রতিবেদনটির মূল ফোকাস হচ্ছে ডেল ল্যাপটপের দিকে। এছাড়াও আমরা জানবো, কীভাবে তারা প্রতিনিয়ত নতুন সব বৈশিষ্ট্যময় ও আকর্ষণীয় ল্যাপটপ মার্কেটে আনছেন, তাও আবার দারুণ সব সাশ্রয়ী মূল্যে। আর টাকা খরচ করার আগে কীভাবে আপনার প্রয়োজন বুঝে সেরা ল্যাপটপটি কিনবেন সে ব্যাপারে ধারণা পাওয়ার জন্য ‘বাংলাদেশে আপনার বাজেটের মধ্যে সেরা ল্যাপটপটি কিনুন’ শীর্ষক আমাদের আগের প্রতিবেদনটি পড়ে দেখার অনুরোধ রইলো।

এখনকার বাজারে ডেলের লেটেস্ট ল্যাপটপ

এখন চলুন দেখে নেয়া যাক আমাদের দেশে ল্যাপটপের বাজারে ডেলের বর্তমান অবস্থা। বেশ কিছু বছর ধরে ইনটেল কোর প্রসেসরগুলো মার্কেটে বেশ জোরালো অবস্থান দখল করে রেখেছে। তা সত্ত্বেও আমাদের বাংলাদেশি টেক মার্কেটে সহজলভ্য প্রসেসরগুলোর মধ্যে পেন্টিয়াম, এটম এবং কোর এগুলোই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। আর যেখানে ল্যাপটপের প্রসঙ্গ চলে আসে, সেখানে ডেল আপনাদের দিচ্ছে ইনটেল কোর আই৩ সপ্তম জেনারেশনের ল্যাপটপ বাংলাদেশে মাত্র ৩৫০০০ টাকার মধ্যে। এই ল্যাপটপটি হচ্ছে ডেল ইন্সপায়রন ১৫-৩৫৬৭।

ডেল ইন্সপায়রন ১৫-৩৫৬৭, বাজেটের মধ্যে একটি গেম-চেঞ্জার ডিভাইস

Dell Inspiron 15-3567

মূল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর ইনটেল কোর আই৩-৭০২০ইউ প্রসেসর (৩ মেগাবাইট ক্যাশ, ২.৩০ গিগাহার্জ)
মেমোরি ৪ জিবি ডিডিআর৪ ২৪০০ মেগাহার্জ র‍্যাম
স্টোরেজ ১ টেরাবাইট ৫৪০০ আরপিএম হার্ড ড্রাইভ
গ্রাফিক্স ইনটেল এইচডি গ্রাফিক্স ৬২০
ডিসপ্লে ১৫.৬ ইঞ্চি এইচডি (১৩৬৬ x ৭৬৮) এন্টি-গ্লেয়ার এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে
অডিও ওয়েভস ম্যাক্স অডিও প্রো ২ এর সাথে হাই ডেফিনেশন অডিও
১টি কম্বো হেডফোন / মাইক্রোফোন জ্যাক ২
ওয়েব ক্যামেরা ইন্টিগ্রেটেড ওয়াইডস্ক্রিন এইচডি (৭২০পি) ওয়েবক্যাম, সাথে ডিজিটাল মাইক্রোফোন
নেটওয়ার্কিং ১০/১০০ ইথারনেট ল্যান, ডেল(টিএম) ওয়্যারলেস ১৭০৪ ৮০২.১১বি/ জি/ এন সহ ব্লুটুথ ভার্সন ৪.০
ব্যাটারি প্রাইমারি ২ সেলের ব্যাটারি
অপারেটিং সিস্টেম ফ্রি ডিওএস
কোম্পানির ওয়ারেন্টি ২ বছরের আন্তর্জাতিক ওয়ারেন্টি

অতএব, ল্যাপটপটির এতসব ফিচারের কথা বিবেচনা করলে এই ডিলটি নিঃসন্দেহে দারুণ।

গ্রাহকরা যদি এর চেয়েও সাশ্রয়ী কোন অপশনের খোঁজ করে থাকেন, তাহলে তারা স্বাচ্ছন্দ্যে ডেল ইন্সপায়রন এন৩৪৬২ ল্যাপটপটিতে তাদের টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন। এই ল্যাপটপটিতে রয়েছে পেন্টিয়ামের একটি কোয়াড কোর (চার কোর) প্রসেসর, যার দরুণ ল্যাপটপটির দাম যথেষ্ট কমে এসে বাংলাদেশে প্রায় ২৭০০০ টাকায় নেমে এসেছে। এই ল্যাপটপগুলো শিক্ষার্থীদের জন্য আদর্শ, পাশাপাশি সেসব ব্যবসায়ী প্রফেশনাল ও কর্মকর্তাদের জন্যও, যারা একটি ল্যাপটপের পেছনে অনেক বিশাল অংকের টাকা খরচ করতে পারেন না, কিন্তু এমন একটি ডিভাইস কিনতে চান যেটি তাদেরকে অন্তত বেশ কিছু বছর পর্যন্ত সার্ভিস দিতে পারবে।  

ডেল ইন্সপায়রন এন৩৪৬২, দামের তুলনায় পাচ্ছেন অনেক বেশি কিছু

Dell Inspiron N3462

মূল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর ইনটেল পেন্টিয়াম প্রসেসর এন৪২০০ (২মেগাবাইট ক্যাশ, ১.১০ গিগাহার্জ থেকে শুরু করে ২.৫ গিগাহার্জ পর্যন্ত)
ডিসপ্লে ১৪.০ ইঞ্চি এইচডি (১৩৬৬ x ৭৬৮) এন্টি গ্লেয়ার এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে
মেমোরি ৪ জিবি ডিডিআর৩এল ১৬০০ মেগাহার্জ
স্টোরেজ ৫০০ জিবি ৫৪০০ আরপিএম স্যাটা হার্ড ড্রাইভ
গ্রাফিক্স ইনটেল এইচডি গ্রাফিক্স ৫০৫
অপারেটিং সিস্টেম ফ্রি ডিওএস
ব্যাটারি ৪০ ওয়াট প্রতি ঘন্টা, ৪ সেলের ব্যাটারি (প্রতিস্থাপনযোগ্য)
অ্যাডাপ্টার ৪৫ ওয়াট এসি অ্যাডাপ্টার (সাথে স্ট্যান্ডার্ড গ্রাফিক্স)
অডিও ওয়েভস ম্যাক্স অডিও প্রো এর সাথে  ২টি টিউনড স্পিকার

ডেলের একটি ভালো ল্যাপটপের জন্য মূল দামের রেঞ্জ ধরা হয়েছে বাংলাদেশে ২২০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৩৭০০০ টাকার মধ্যে। ডেলের আরেকটি সমসাময়িক ভালো মানের ল্যাপটপ মডেল হচ্ছে ডেল ইন্সপায়রন ১৪ এন৩৪৬৭ ল্যাপটপ, যার দাম বাংলাদেশে ধরা হয়েছে মাত্র ৪৪০০০ টাকা। এখানে ‘মাত্র’ বলছি, কারণ এতে রয়েছে ইনটেল কোর আই৫ এবং সেটিও সপ্তম জেনারেশনের।

ডেল ইন্সপায়রন ১৪ এন৩৪৬৭

Dell Inspiron 14-N3467

মূল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর ইনটেল কোর আই৫-৭২০০ইউ প্রসেসর (৩মেগাবাইট ক্যাশ, ২.৫০ গিগাহার্জ থেকে শুরু করে ৩.১০ গিগাহার্জ পর্যন্ত)
মেমোরি ৪ জিবি ডিডিআর৪ ২৪০০ মেগাহার্জ
স্টোরেজ ১ টেরাবাইট ৫৪০০ আরপিএম হার্ড ড্রাইভ
গ্রাফিক্স ইনটেল এইচডি গ্রাফিক্স ৬২০
ডিসপ্লে ১৪.০ ইঞ্চি এইচডি (১৩৬৬ x ৭৬৮) এন্টি গ্লেয়ার এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে
অডিও ওয়েভস ম্যাক্স অডিও প্রো ২ এর সাথে হাই ডেফিনেশন অডিও
১টি কম্বো হেডফোন / মাইক্রোফোন জ্যাক ২
ওয়েব ক্যামেরা ইন্টিগ্রেটেড ওয়াইডস্ক্রিন এইচডি (৭২০পি) ওয়েবক্যাম, সাথে ডিজিটাল মাইক্রোফোন
নেটওয়ার্কিং ১০/১০০ ইথারনেট ল্যান, ডেল(টিএম) ওয়্যারলেস ১৭০৪ ৮০২.১১বি/ জি/ এন সহ ব্লুটুথ ভার্সন ৪.০
ব্যাটারি প্রাইমারি ৪ সেলের ব্যাটারি
অপারেটিং সিস্টেম ফ্রি ডিওএস
কোম্পানির ওয়ারেন্টি ২ বছরের আন্তর্জাতিক ওয়ারেন্টি

আজকাল ডেলের লেটেস্ট ল্যাপটপগুলোতে লেটেস্ট প্রসেসরের পাশাপাশি আর ভালো গ্রাফিক্স কার্ডের ব্যবহার করা হচ্ছে। ঘন্টায় ব্যাটারি লাইফও আগের চেয়ে আরো উন্নত হয়েছে, তবে একেক মডেলের জন্য এই ব্যাটারি লাইফ একেক রকম। ডেল তাদের ইন্সপায়রন সিরিজটিতে অনেক ভিন্ন ভিন্ন ধরণের ল্যাপটপ আমাদের সামনে নিয়ে এসেছে, যার মধ্যে ৩টি মডেল সম্পর্কে আমরা উপরে আলোচনা করেছি । আর এই ৩টি মডেলেরই স্ক্রিন সাইজ একই রকম, অর্থাৎ ১৫.৬ ইঞ্চি। এছাড়াও উপরে উল্লেখিত সবগুলো ল্যাপটপের সাথেই রয়েছে একটি করে ৪ জিবি ইন-বিল্ট (মাদারবোর্ডের সাথে সংযুক্ত) র‍্যাম। এই বৈশিষ্ট্যগুলো হালকা কাজের জন্য যেমন আদর্শ, তেমনি এই ফিচারসহ ল্যাপটপগুলোর আয়ুষ্কালও সেরকম হয়। আপনারা চাইলে এই র‍্যাম মেমোরি আরো বাড়িয়ে নিতে পারবেন, তবে সেটি করতে হবে এক্সটারনাল ভাবে বা মাদারবোর্ডের বাইরে থেকে।

তবে সম্ভাব্য ক্রেতারা যদি এমন একটি ডেল ল্যাপটপ খোঁজেন যাতে ইন-বিল্ট মেমোরি আরো বেশি, তাহলে তারা ডেল ইন্সপায়রন ১৫- এন৫৫৬৭ এর উপর ভরসা করতে পারেন। ইনটেল কোর আই৫ প্রসেসর সহ এই ল্যাপটপটির ভেতরে দেয়া হয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম, তার উপর সেই প্রসেসরটিও আবার সপ্তম জেনারেশনের।

ডেল ইন্সপায়রন ১৫- এন৫৫৬৭

Dell Inspiron 15-N5567

মূল স্পেসিফিকেশন:

প্রসেসর ইনটেল কোর আই৫-৭২০০ইউ প্রসেসর (৩মেগাবাইট ক্যাশ, ২.৫০ গিগাহার্জ থেকে শুরু করে ৩.১০ গিগাহার্জ পর্যন্ত)
মেমোরি ৮ জিবি, ডিডিআর৪, ১৬ জিবি পর্যন্ত (বাড়তি মেমোরি আলাদাভাবে বিক্রি করা হয়)
স্টোরেজ ১ টেরাবাইট ৫৪০০ আরপিএম হার্ড ড্রাইভ
গ্রাফিক্স এএমডি রেডিওন আর৭ এম৪৪৫ গ্রাফিক্সের সাথে ২জি জিডিডিআর৫ গ্রাফিক্স মেমোরি
ডিসপ্লে ১৫.৬ ইঞ্চি এইচডি (১৩৬৬ x ৭৬৮) ট্রুলাইফ এলইডি ডিসপ্লে
অডিও ওয়েভস ম্যাক্স অডিও প্রো এর সাথে  ২টি টিউনড স্পিকার
১টি কম্বো হেডফোন / মাইক্রোফোন জ্যাক
ওয়েব ক্যামেরা ইন্টিগ্রেটেড ওয়াইডস্ক্রিন এইচডি (৭২০পি) ওয়েবক্যাম, সাথে ডুয়াল ডিজিটাল মাইক্রোফোন অ্যারে
নেটওয়ার্কিং ৮০২.১১ এসি + ব্লুটুথ ৪.২, ডুয়াল ব্যান্ড ২.৪ এবং ৫ গিগাহার্জ, ১x১
ইন্টারফেস ১টি এইচডিএমআই ভার্সন ১.৪এ
২টি ইউএসবি ৩.০
১টি ইউএসবি ২.০
১টি কেনসিংটন লক স্লট
১০/১০০ আরজে-৪৫ ইথারনেট নেটওয়ার্ক
১টি এসডি কার্ড স্লট (এসডি, এসডিএইচসি, এসডিএক্সসি)
ব্যাটারি ৪২ ওয়াট প্রতি ঘন্টা, ৩ সেলের ব্যাটারি (ইন্টিগ্রেটেড)
অপারেটিং সিস্টেম উবুন্টু লিনাক্স
কোম্পানির ওয়ারেন্টি ২ বছরের আন্তর্জাতিক ওয়ারেন্টি

বর্তমানে ডেলের ইন্সপায়রন সিরিজের মধ্যে ডেল ইন্সপায়রন ১৫-৩৫৬৭ মডেলটি বেশ খ্যাতি অর্জন করেছে, যেটির কথা আমরা কিছুক্ষণ আগেও আলোচনা করেছি। তবে এই ল্যাপটপ মডেলটির সাথে বিভিন্ন রকম উপযুক্ত প্রসেসর দেয়ার অপশন রয়েছে। আর আপনি যদি আপনার বাজেট আরেকটু বাড়ান, তাহলে নিশ্চিত ভাবে ডিভাইসটিতে আরো উন্নত স্পেসিফিকেশন পাবেন।

এছাড়াও ডেল ল্যাটিটিউড সিরিজের ল্যাপটপগুলোও গ্রাহকদেরকে তথ্য ও যোগাযোগের ক্ষেত্রে একটি দামী ডিভাইসের পারফর্মেন্স দিতে পারে। এই ল্যাপটপগুলোর গুনগত মান প্রিমিয়াম পর্যায়ের এবং এগুলোর দামও তুলনামূলক ভাবে বেশি হয়। আর সব ল্যাপটপ ব্যবহারকারীরাই তাদের ডিভাইসের ব্যাটারি পাওয়ার বা ক্ষমতাকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। একটি ল্যাপটপ যেহেতু পরিবহনযোগ্য এবং সব সময় সেটিকে চার্জ দেয়ার মত পরিস্থিতি নাও থাকতে পারে, সেহেতু একজন সম্ভাব্য ক্রেতার জন্য মোটামুটি রকম দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ বা লম্বা সময় চার্জ থাকাটা সব সময়ই একটি আকর্ষণের বিষয়। ডেল ইন্সপায়রন সিরিজের ল্যাপটপগুলোতে বিভিন্ন টাইপের ব্যাটারি দেয়া থাকে, যেগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই প্রাইমারি ২ সেলের ব্যাটারি হয়, আবার কিছু কিছু ডিভাইসে ৪ সেলের ব্যাটারিও দেয়া হয়। আর তুলনামূলক সাশ্রয়ী দামের কম্পিউটারগুলোর মধ্যে প্রচলিত ব্যাটারিগুলো সাধারণত ২ থেকে ৪ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যবহারের সুবিধা দিতে পারে।

এছাড়াও, ডেল ল্যাপটপগুলোর প্রায় প্রত্যেকটিতেই অপারেটিং সিস্টেম আপগ্রেড হয়ে উইন্ডোজ ১০ ওএস পাওয়া যাচ্ছে। যদিও উইন্ডোজ ১০ এর অরিজিনাল সফটওয়্যার দেয়া ল্যাপটপগুলোর সামগ্রিক দাম কিছুটা বেড়ে যায়, তারপরও এই সুবিধাটি একজন গ্রাহককে আর বেশি নিরাপদ ও রক্ষণশীল অভিজ্ঞতা দিতে পারে। নিঃসন্দেহে এই সব কিছুর কৃতিত্ব উইন্ডোজ ১০ -এর নিরাপত্তা ব্যবস্থার আপগ্রেডের।

যদি সম্ভাব্য ক্রেতারা এই দামের রেঞ্জে বাজেট ধরতে পারেন, তাহলে প্রায় নিশ্চিতভাবেই তারা তাদের কষ্টের টাকায় একটি ভালো ডিল পাবেন। এই ল্যাপটপগুলো শুধুমাত্র শক্তসমর্থই নয়, পাশাপাশি এগুলো ব্যবহারকারীদেরকে খেলাধুলা ও বিনোদনমূলক সুযোগ সুবিধাও দিতে পারে। তার উপর এই ল্যাপটপগুলো গেমারদের জন্যও বেশ উপযুক্ত। আমাদের দেশে ইদানিং গেমিং বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এবং কিছুদিন ধরে এর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। আবার যেহেতু একটি গেমিং পিসি আর সেট-আপ কেনা বেশ ব্যয়বহুল একটা ব্যাপার, সেজন্য গেমাররা সাধারণত হালকা মাপের গেমিং এর জন্য তাদের ল্যাপটপের উপর নির্ভরশীল। আর এই উদ্দেশ্য পরিপূরণ করার জন্য ডেল ল্যাপটপগুলো আদর্শ। যদিও ডেলের গেমিং ল্যাপটপগুলো খুব একটা সাশ্রয়ী নয়, তবুও অন্যান্য বাজারে থাকা অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় এগুলোর দাম বেশ কম। ডেল ইন্সপায়রন এন৭৫৬৬ মডেলের ল্যাপটপটি গেমারদের জন্য আদর্শ এবং এর দাম বাংলাদেশে প্রায় ৭৩০০০ টাকা পড়বে। এটি গেমারদের জন্য দিচ্ছে ষষ্ঠ জেনারেশনের ইনটেল কোর আই৫ প্রসেসর, আর সাথে ১৫.৬ ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে। ল্যাপটপটির শক্তিশালী পারফর্মেন্স ও ভালো কনফিগারেশনের সাথে তুলনা করলে এই দাম আসলেই বেশ যুক্তিসঙ্গত।

ল্যাপটপ কেনার জন্য আদর্শ মার্কেটপ্লেস কোনটি এবং ঠিক কতটা খরচ করতে হবে?

এখন আপনাদের মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে যে এই ল্যাপটপগুলো ভালো দামে কোথায় পাবেন? আজকাল অনেক রকম নতুন ও ব্যবহৃত বাছাই করা ল্যাপটপের সংগ্রহ রয়েছে অনলাইনেই। Bikroy.com -এর মত ওয়েবসাইটগুলো তাদের সম্ভাব্য ক্রেতাদেরকে অফার করছে নতুন কিংবা ব্যবহৃত উভয় ধরণের লেটেস্ট ডেল ল্যাপটপের এক বিশাল সংগ্রহ। সত্যি বলতে বিক্রয় -এ পোস্ট হওয়া বিজ্ঞাপনগুলোর মধ্যে ব্যবহৃত ল্যাপটপের চেয়ে বরং নতুন ও ব্র্যান্ডের ল্যাপটপের সংখ্যাই অনেক বেশি। অনলাইন প্ল্যাটফর্মে শুধুমাত্র ডেলেরই বিজ্ঞাপন রয়েছে ৪ হাজারের বেশি, আর ক্রেতাদের পছন্দের তালিকায়ও এগুলো বেশ উপরেই রয়েছে। সপ্তম জেনারেশনের কোর আই ৫ প্রসেসর সহ ডেল ভস্ট্রো ৩৪৬৮ এর মত ল্যাপটপগুলো বিক্রয় -এ পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৩৪০০০ টাকার মধ্যে। যদি গ্রাহকরা লেটেস্ট ডেল ল্যাপটপ কিনতে চান, তাহলে সেরা ডিলটি খুঁজে পেতে অবশ্যই একবার Bikroy.com -এর টেক পেইজটি ঘুরে আসুন!

যখন দামের কথা চলে আসে, তখন কিছু মৌলিক ফ্যাক্টর আমাদের মাথায় রাখা উচিত। বাংলাদেশে চাইলে মাত্র ১৫০০০ থেকে ২০০০০ টাকার মধ্যে একটি ব্যবহার উপযোগী ল্যাপটপ কিনে ফেলা সম্ভব। কিন্তু এটাও বেশ স্পষ্ট যে এই ল্যাপটপগুলো দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহারের দিক থেকে আরেকটু দাম দিয়ে কেনা ল্যাপটপের তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে থাকবে। বাজেট সামান্য বাড়িয়ে বাংলাদেশে মাত্র ২৫০০০ থেকে ৩০০০০ টাকার মধ্যে ধরতে পারলে একজন গ্রাহক সত্যিকার অর্থে একটি ভালো ও শক্তিশালী ডিভাইস কিনে নিতে পারবেন। ২০১৯ সালে ডেল ব্যবহারকারীদের মধ্যে জনপ্রিয় ডেল ল্যাপটপগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই সচরাচর এই দামের মধ্যে পড়ে, কিংবা হয়ত আর সামান্য বেশি হতে পারে। আজকের বাজারে এখনও জনপ্রিয় এমন কালজয়ী ডিভাইসগুলোর সম্পর্কে ধারণা নিতে আমাদের Bikroy.com -এর ব্লগ পেইজের আরো একটি প্রতিবেদন আপনার উপকারে আসতে পারে, যেখানে আমরা বাজারের ১০টি সেরা ল্যাপটপ কম্পিউটার ও এদের স্পেসিফিকেশনগুলো তুলে ধরেছি।

ইতিকথা

সবশেষে বলতে গেলে ল্যাপটপ সব সময়ই গ্রাহকদের চাহিদার শীর্ষে থাকবে, হোক তা নতুন কিংবা ব্যবহৃত। এই ডিভাইসগুলো বহনযোগ্য এবং যথেষ্ট কমপ্যাক্ট, যে কারণে ব্যবহারকারীরা কাজ করতে করতেই চলাফেরা করতে পারেন। আজকের দুর্বার গতিশীল পৃথিবীতে চলার পথে আমাদের প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো সাথে নিয়েই চলতে হয় আমাদের। একটি ল্যাপটপের পেছনে বিনিয়োগ করা বেশ ঝামেলাবহুল একটি কাজ, যদি না আমরা জানি যে ঠিক কোন জিনিসটি খুঁজতে হবে। দিনশেষে ভিন্ন ভিন্ন ল্যাপটপ মডেলের পারফর্মেন্স ভিন্নই হবে, কিন্তু তার মানে এই নয় যে ভালো পারফর্মেন্সের আশায় আমাদের সব সময় বিশাল অংকের টাকাই খরচ করতে হবে। ২০১৯ সালের বাজারে ডেল ল্যাপটপগুলো বেশ লক্ষণীয় মাত্রায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কেউ কেউ এই ল্যাপটপগুলো নিয়ে ভালো রিভিউ দেবেন, আবার কেউ কেউ হয়ত বলবেন যে তাদের এগুলো মোটেই পছন্দ নয়। কিন্তু দিনশেষে সিদ্ধান্ত আপনারই।

আশা করি আমাদের এই প্রতিবেদনটি আপনাকে কিছুটা হলেও ধারণা দিতে পেরেছে যে ডেল ল্যাপটপ আপনাদের জন্য ঠিক কেমন ল্যাপটপ অফার করছে, আর আপনারা সেগুলোর থেকে ঠিক কতটুকু পারফর্মেন্স পাওয়ার আশা করতে পারবেন। Bikroy.com -এ আপনাদের জন্য রয়েছে নামকরা সব কোম্পানি আর ব্র্যান্ডের নতুন ও ব্যবহৃত ল্যাপটপ। আজই ভিসিট করুন আমাদের সাইটটি, আর আপনার নতুন ল্যাপটপটি ঘরে নিয়ে  আসুন!

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments