২০১৮ সালে আবাসন খাত এর সার্বিক অবস্থা | ইনফোগ্রাফিক

২০১৮ সালে যেমন ছিল আবাসন মার্কেট
Share

আবাসন খাতে বিশেষ কিছু সেবা নিয়ে বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেটে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মার্কেটপ্লেস Bikroy.com. কেবল পণ্য কেনা-বেচার বিজ্ঞাপনের হিসাবে নয়, বরং Bikroy.com প্রপার্টি পোর্টাল গ্রাহকদের প্রতি দায়িত্বশীল ভুমিকা পালনে বিশ্বাস করে। সেকারণেই Bikroy.com বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেটের ট্রেন্ড যাচাই করে গ্রাহকদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। ব্যস্ত জীবনে এখন অনেকেই বাড়ি, অ্যাপার্টমেন্ট, প্লট এবং বাণিজ্যিক প্রপার্টি কিংবা জমি-জমা কেনার জন্য ভিজিট করেন অনলাইন মার্কেটপ্লেস।অনলাইনে প্রপার্টি কেনাবেচার সর্বোচ্চ সংখ্যক ক্রেতার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু ঢাকা শহর। ঢাকা শহরে এই হার ৮৫.২২%। দিনদিন দেশব্যাপি অনলাইনে এই হার বেড়েই চলছে। বাজারে নতুন পণ্য বা প্রতিষ্ঠান আসার পর ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য চাই বাজারজাতকরণের যথাযথ এবং জোরালো ভূমিকা। ২০১৮ সালে ক্রেতা, বিক্রেতা ও ভাড়াটিয়াদের তথ্যের ওপর ভিত্তি করে শহরের চাহিদাসম্পন্ন স্থানগুলোতে প্রপার্টি বিক্রি ও ভাড়া, প্রপার্টিগুলোর আকার ও মূল্য ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে এক জরিপ করে Bikroy.com। বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেটের খুঁটিনাটি যাবতীয় বিষয় নিয়ে Bikroy.com একটি ইনফোগ্রাফিক প্রকাশ করেছে, যেটি দেখে ২০১৯ সালে যে কেউ প্রপার্টি কেনাবেচা ও ভাড়া সংক্রান্ত আরও ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

এ জরিপের ভিত্তিতে Bikroy.com প্রপার্টির কিছু প্রকার বের করেছে, যেখানে রয়েছে, বেশি চাহিদা, কোন এলাকায় প্রপার্টির জন্য আগ্রহী ক্রেতার সংখ্যা বেশি এবং বাংলাদেশে প্রপার্টি মার্কেট ভবিষ্যতে কিভাবে এগিয়ে যাবে। ২০১৮ সালের এই বিষয় ও সংখ্যাগুলো ২০১৯ সালে বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেটের জন্য ট্রেন্ড নির্ধারক হিসেবে কাজ করবে।

ঢাকায় প্রপার্টি বিক্রি হওয়া শীর্ষস্থানীয় এলাকা

ঢাকায় প্রপার্টি বিক্রি হওয়া শীর্ষস্থানীয় এলাকা

দাম অনুযায়ী বিক্রির জন্য প্রপার্টির তালিকা

দাম অনুযায়ী বিক্রির জন্য প্রপার্টির তালিকা

আপনি যদি রাজধানী ঢাকায় প্রপার্টি ক্রয় করতে চান তাহলে আপনার জন্য ৫টি উপযুক্ত স্থান রয়েছে। এই স্থানগুলো ২০১৮ সালে Bikroy.com এর প্রপার্টি পোর্টালে সর্বাধিক বিক্রেতা কর্তৃক বিজ্ঞাপন পোস্ট করার ভিত্তিতে নির্বাচন করা হয়েছে। নিশ্চিতভাবেই, প্রপার্টির জন্য আগ্রহী ক্রেতাদের পছন্দের প্রথম সারিতে রয়ে‍ছে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা। এই এলাকার আগ্রহী ক্রেতা পুরো মার্কেটের প্রায় চারভাগের এক ভাগেরও বেশি, প্রায় ২৬%। এই সারিতে ১৮% নিয়ে মিরপুর দ্বিতীয় এবং ১৫% নিয়ে গুলশান তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। এর পরের অবস্থানে আছে রামপুরা ১১% এবং উত্তরা ৯%।      

বিক্রির উদ্দেশ্যে পোস্ট করা বিজ্ঞাপনগুলো মূল্য সর্বনিম্ন প্রতি বর্গফুট ৩,০০০ টাকা থেকে প্রতি বর্গফুট ১০ হাজার টাকার বেশি। জরিপে দেখা যাচ্ছে যে, প্রায় অর্ধেক (৪৫%) বিজ্ঞাপন পোস্ট করা হয় মিড-রেঞ্জ শ্রেণীর জন্য অর্থাৎ প্রপার্টির মূল্য প্রতি বর্গফুট ৫-৭ হাজার টাকা। এর পরে রয়েছে প্রতি বর্গফুট ১০-১১ হাজার টাকা মূল্যের প্রপার্টি, যেটি ২৬%। বাকি ২৯% প্রপার্টির জন্য চাওয়া হয়েছে বিভিন্ন দাম। দামের দিক থেকে বিবেচনা করলে ঢাকায় সবচেয়ে বেশি দামী প্রপার্টি গুলশান এলাকার অন্তর্ভুক্ত। এই এলাকায় র‌্যাংগস গ্রুপের একটি কণ্ডোমিনিয়াম রয়েছে যার বিক্রয় মূল্য চাওয়া হয়েছে ১৫ কোটি টাকা। আরও দেখে নিন ঢাকা শহরের যেসব এলাকা ফ্ল্যাট কেনার জন্য জনপ্রিয়?

ঢাকায় প্রপার্টি ভাড়া হওয়া শীর্ষস্থানীয় এলাকা

ঢাকায় প্রপার্টি ভাড়া হওয়া শীর্ষস্থানীয় এলাকা

দাম অনুযায়ী ভাড়ার জন্য প্রপার্টির তালিকা

দাম অনুযায়ী ভাড়ার জন্য প্রপার্টির তালিকা

ঢাকায় প্রপার্টি ভাড়ার দিক থেকে গুলশান এলাকা সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে, যেটি ৮১%। ৮% নিয়ে এর পরের অবস্থানে রয়েছে বনানী এবং বসুন্ধরা রয়েছে ৫%-এ।

যদিও ঢাকা শহরে বাড়ি ভাড়া অনেক বেশি, তবু প্রায় অর্ধেক (৪৪%) বাড়ি ভাড়া হয় প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকার বেশি মূল্যের প্রপার্টির। মাত্র ২২% প্রপার্টি মধ্যম শ্রেণীর ভাড়ার মধ্যে পড়ে, যেটি প্রতি মাসে ১০-২০ হাজার টাকা।

দাম অনুযায়ী সেরা পছন্দের জায়গাগুলো

দাম অনুযায়ী সেরা পছন্দের জায়গাগুলো

ফ্ল্যাটের সাইজ অনুযায়ী সেরা জায়গাগুলো

ফ্ল্যাটের সাইজ অনুযায়ী সেরা জায়গাগুলো

নতুন বনাম ব্যবহৃত ফ্ল্যাট

নতুন বনাম ব্যবহৃত ফ্ল্যাট

সেরা সার্চ হওয়া জায়গাগুলো

সেরা সার্চ হওয়া জায়গাগুলো

২০১৮ সাল জুড়ে সব ক্রয়ের ওপর বাজার প্রবণতা উপলব্ধি করা যেতে পারে। বছরের প্রথম তিন মাসে প্রপার্টির জন্য আগ্রহী ক্রেতাদের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি – প্রায় ৮ হাজারের বেশি, পরের তিন মাস অর্থাৎ – এপ্রিল, মে ও জুনে প্রপার্টি কেনাবেচা কমে গেলেও শেষ তিন মাস অর্থাৎ অক্টোবর, নভেম্বর ও ডিসেম্বর প্রপার্টি কেনাবেচা বেড়েছে।   

Bikroy.com এর প্রপার্টি পোর্টালে নতুন ফ্ল্যাটের জন্য আগ্রহী ক্রেতাদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বেশি, প্রায় ৯৬%। অন্যদিকে পুরোনো ফ্ল্যাটের ক্ষেত্রে আগ্রহী ক্রেতাদের সংখ্যা ৪%। এটির একটি কারণ হচ্ছে পুরনো বা ব্যবহৃত ফ্ল্যাটের তুলনায় নতুন ফ্ল্যাটের বিজ্ঞাপনের সংখ্যা তুলনামূলক ভাবে বেশি কেননা পুরনো বা ব্যবহৃত ফ্ল্যাটের বিজ্ঞাপন পোস্ট করার পর দ্রুত আগ্রহী ক্রেতাদের খোঁজ মিলে যায় ফলে বিজ্ঞাপনগুলো বেশিদিন পোর্টালে থাকে না। নতুন ফ্ল্যাট বিক্রি হয়েছে সিংহভাগ, যেটি ৯৬%। অন্যদিকে পুরোনো ফ্ল্যাটের ক্ষেত্রে মাত্র ৪% বিক্রি দেখা গেছে। তবে, আরও বেশি নতুন ফ্ল্যাট তৈরি হচ্ছে এবং বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন পোস্ট করা হচ্ছে। সবচেয়ে বেশি সার্চ করা এলাকার তালিকায় রয়েছে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, গুলশান, উত্তরা, ধানমণ্ডি ও মোহাম্মদপুর।

প্রপার্টি কেনার ট্রেন্ড

প্রপার্টি কেনার ট্রেন্ড

বাংলাদেশের আবাসন বাজার খুব পরিবর্তনশীল। এটি সত্য, যে এটি শুধু বাংলাদেশের জন্যই প্রযোজ্য নয় বরং উন্নত বিশ্ব যেমন- যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মতো দেশগুলোর জন্যও প্রযোজ্য। বর্তমানে এই বাজারের সাথে কিছু বিষয় জড়িত রয়েছে যেমন অর্থনৈতিক এবং বিভিন্ন ধরনের অস্থিতিশীলতা। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশী বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাধা-নিষেধ সহ বিভিন্ন কারণে মালিকদের প্রপার্টি বিক্রির ক্ষেত্রে বাধা আসে অথবা নতুন ক্রেতারা প্রপার্টি কেনার ক্ষেত্রে অনুৎসাহিত হয়। তবে, কিছু গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্প দোরগোড়ায় আছে, ফলে ভবিষ্যতে এ বাজার বেশ ভালো করার প্রত্যাশা করতেই পারে।

 

নিচের লিঙ্ক গুলো  থেকে ইনফোগ্রাফিকটি ডাউনলোড করুনঃ

পিন্টারেস্টঃ বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেট

স্লাইডশেয়ারঃ বাংলাদেশের প্রপার্টি মার্কেট

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments