ভালো চাকরির জন্য নিজেকে এগিয়ে রাখতে করনীয়

চাকরি
Share

আমরা অনেকেই চাকরি খুঁজছি। এমনও যদি হয় যে আমরা চাকরি খুঁজছি না বা করতে চাচ্ছি না কিন্তু তার পরও সুন্দর ভাবে বেচে থাকার জন্য আমাদের একটি নিরবিচ্ছিন্ন আয়ের উৎস প্রয়োজন। প্রতিদিনই নতুন নতুন ফ্রেশ গ্র্যাজুয়েট বের হচ্ছেন যারা অত্যন্ত মেধাবী কিন্তু কাজ করার জন্য মনের মত কর্মক্ষেত্রের সন্ধান পাচ্ছে না। চাকরি পাওয়া এতটা সহজ নয় তবে খুব কঠিনও নয়। আমরা প্রায়ই কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এড়িয়ে যাই যা একজন চাকরির প্রার্থীকে চাকরিদাতার কাছে গুরুত্ববহ করে তোলে। আমাদের আজকের লেখাটিএসব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়েই সাজানো হয়েছে যাতে করে আপনি চাকরির জন্য সেরা প্রার্থী হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন।

পাবলিক স্পিকিং রপ্ত করুন

আপনি যদি ইন্টারভিউয়ারের সাথে কথা বলে একটি গভীর সংযোগ স্থাপন করতে না পারেন তবে আপনার চাকরি পাবার সম্ভাবনা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। যথার্থভাবে ভাব আদান প্রদান করার ক্ষেত্রে আপনাকে যথার্থভাবে সক্ষম হতে হবে। আপনি যদি এই স্কিলটি দেখাতে না পারেন তবে আপনার সম্পর্কে ইন্টারভিউয়ারের ভাল ধারণা হবে না। সুন্দরভাবে কথা বলতে পারার ক্ষমতা নির্ভর করে মনোযোগের সাথে ওপর ব্যক্তির শুনতে পারার ক্ষমতার উপর। আপনি যদি ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলে যেতে পারেন তবে অপর ব্যক্তির কথা শোনার মানসিকতা আপনার না থাকে তবে এখন থেকেই নিজেকে ভাল শ্রোতা হিসেবে গড়ে তুলুন। ভাল বলতে পারার ক্ষমতা আপনাকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে কিন্তু আপনার টেকনিক্যাল স্কিলগুলোতে যদি কোন ঘাটতি থেকে থাকে তবে সেগুলো এড়িয়ে যেতে সক্ষম হবে না। সুতরাং আপনার ভাল বলতে পারার ক্ষমতা এমন ভাবে ব্যবহার করুন যাতে করে সেটি আপনার কর্মদক্ষতাকে আরও বিকশিত করে।

ফিটফাট হয়ে নিজেকে উপস্থাপন করুন

ফেইসবুক পোস্ট কিংবা মোটিভেশনাল কোট আপনাকে হয়ত আশ্বস্ত করার জন্য বলবে যে আপনার স্মার্টনেস বা চাকচিক্য অপ্রয়োজনীয়। তবে বাস্তব জগতে আপনি কতটা ফিটফাট হয়ে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারছেন তার প্রভাব অকল্পনীয়। আপনি যদি চাকরি পেতে চান তবে আপনি নিজেকে এমন ভাবে উপস্থাপন করুন যে আপনি চাকরির জন্য তৈরি হয়ে এসেছেন। আপনি যখন ইন্টারভিউয়ের জন্য প্যানেলে ঢুকবেন তখন আপনাকে একটি ভাল ইম্প্রেশন দিতে হবে। আপনি কিভাবে নিজেকে উপস্থাপন করছেন তা আপনাকে কোন রকম প্রশ্ন করা ছাড়াই আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু বলে দিতে সক্ষম। সুতরাং নিজেকে উপস্থাপন করার ব্যাপারে আপনি অসচেতন হয়ে থাকলে একেবারেই চলবে না। বেশিরভাগ ইন্টারভিউতেই ইন্টারভিউয়াররা বিজনেস ক্যাজুয়াল পোশাক আশা করে থাকেন তবে আপনি যদি আপনার সম্পর্কে ভাল ইম্প্রেশন রাখতে চান তবে আপনাকে আরও অনেকদূর যেতে হবে। আপনি যদি শার্ট পড়েন তবে খেয়াল রাখুন সেটি ঠিকমত আয়রন করা কিনা, আপনি যদি চশমা পরে থাকেন তবে চশমার গ্লাস যেন স্পটলেস থাকে। আপনার অঙ্গভঙ্গিতেও আনতে হবে আমূল পরিবর্তন, কোনভাবেই জুবুথুবু হয়ে ইন্টারভিউয়ারের সামনে বসা চলবে না। এই ছোটখাটো ডিটেইলসগুলো হয়ত আপনার কর্মদক্ষতার প্রতিফলন ঘটাবে না কিন্তু এসব ছোটখাটো ব্যাপারে আপনার অবহেলা আপনার সম্পর্কে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

প্রাণবন্ত থাকুন

আপনি হয়ত কোন সময় চাকরি পাবার ক্ষেত্রে সফল হতে পারেননি তাই এই লেখাটি পড়ছেন এবং এটি খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। সব কিছুই আসলে একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে আপনি আপনার ভুলগুলো শুধরে বা ঘাটতিগুলো পূরণ করে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছাবেন। কখনও হয়ত এমন সময় আসবে যে আপনি হতাশ হয়ে পড়বেন। কখনও হয়ত আপনি আপনার দক্ষতা এবং আত্মসম্মানবোধ নিয়ে নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করবেন বা আঙ্গুল ওঠাবেন। প্রায় প্রতিটি মানুষই এই ধরণের পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়ে এসেছেন এবং দুর্গম পথ অতিক্রান্ত করেছেন। আপনার চাকরি না পাওয়া কিংবা বেকারত্ব কোনটিই যাতে আপনার মোটিভেশন কমে যাওয়া কিংবা হাল ছেড়ে দেবার কারণ হয়ে না দাঁড়ায়। চাকরি পাবার সবচেয়ে বড় মন্ত্রটি হল লেগে থাকা এবং হাল ছেড়ে না দেয়া।

বাস্তবসম্মত প্রত্যাশা রাখুন

সবাই যার যার ফিল্ডের সেরা কোম্পানিতেই চাকরি করতে চান। ভাল বেতন, সুযোগ সুবিধা এবং ছুটি সব কিছুই প্রত্যাশিত থাকে। অনেকেই হয়ত এগুলো পেতে সক্ষম হন। সবার ক্ষেত্রে হয়ত এই সুবিধাগুলো পুরোপুরি মিলে না। একজন চাকরি প্রার্থী হিসেবে আপনাকে এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে যে প্রথম চাকরিটিতেই আপনি হয়ত সমস্ত সুযোগ সুবিধা একবারে পেয়ে যাবেন না। আপনি সুযোগ অবশ্যই পাবেন তবে তার জন্য আপনাকে কাজে আন্তরিক প্রচেষ্টা এবং ডেডিকেশন দেখাতে হবে। ভাল কাজের দাম আপনি পাবেন তবে আপনাকে প্রথমে আপনার যোগ্যতা প্রমাণ করতে হবে। সুতরাং শুরুতেই সব ধরণের সুযোগ সুবিধা একসাথে আশা না করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

ব্যক্তিগতভাবে রিসার্চ করুন

আমরা চাকরি সংক্রান্ত যত প্রবন্ধ লিখি সেগুলোর প্রত্যেকটিতেই আমরা রিসার্চের কথা বলি। আমরা আপনাকে সবসময়েই পরামর্শ দিই ইন্টারভিউ দিতে যাবার আগে কোম্পানি, যে পদের জন্য ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছেন সেই পদ ইত্যাদি সম্পর্কে ভালভাবে জেনে নিন। তবে আজকের এই টিপসটি একটু ব্যতিক্রমী। অনেক মানুষই সাধারণ সময়ের চেয়ে বেশি সময় ধরে বেকার থাকেন। এই সময়টিতে আপনি নিজেকে ব্যবসায় সংক্রান্ত বিষয়ে আপডেটেড রাখুন। আপনি যেই ফিল্ডের চাকরি খুঁজছেন সেই ফিল্ডে কি অবস্থা তা সম্পর্কে সম্যক ধারণা রাখার চেষ্টা করুন। আপনার ফিল্ডের কাজের নতুন টেকনিক, ব্রেকথ্রু যাই আছে সবকিছু নিজে শেখার চেষ্টা করুন। এতে করে আপনি সমসাময়িক অবস্থা সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা নিয়ে চাকরিতে প্রবেশ করতে পারবেন। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ব্যবসায়ের কোন বিষয় সম্পর্কে আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় তবে আপনি যদি উত্তর দিতে না পারেন তবে আপনি একটি লজ্জাজনক পরিস্থিতির শিকার হবেন। সুতরাং বেশি বেশি রিসার্চ করুন এবং নিজেকে আপডেটেড রাখুন।

Bikroy.com/Jobs এ আছে ১০০০+ চাকরির অফার! আজই আবেদন করুন।

নিউজলেটারে সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

Comments

comments