প্রপার্টি

বাসা বাড়ি বিক্রি করার সময় যে ৬ টি ভুল কখনোই করা যাবে না

বাসা কিংবা বাড়ি বিক্রির সময় আমরা সাধারণত যে ভুলগুলো করে থাকি, সেগুলো না করলেই প্রায় অর্ধেক চিন্তা কমে যেতে পারে অনায়াসেই। বাসা বিক্রি নিঃসন্দেহে আমাদের জীবনের অন্যতম প্রধান সিদ্ধান্তের মধ্যে একটি, তবে প্রথম বার হলে এই কাজটি বেশ সময় সাপেক্ষ এবং জটিল হয়ে উঠতে পারে আপনার জন্য। 

কোনো রকম পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া এবং আবেগের বশবর্তী হওয়ার কারণে ছোটোখাটো ভুল করাটা বেশ স্বাভাবিক। সর্বোপরি ৯ বছর বাংলাদেশের আবাসন খাতের সাথে সরাসরি যুক্ত থাকার মাধ্যমে এই খুঁটিনাটি ভুলগুলো কীভাবে পাশ কাটানো যেতে পারে তাই নিয়ে আমাদের ধারণা উপস্থাপন করার প্রয়াস করেছি। 

আজ আমরা কীভাবে আপনার বাড়ি নির্বিঘ্নে বিক্রি করতে এবং কীভাবে বিজ্ঞাপন দেওয়ার মাধ্যমে বাড়ি বিক্রি আরও সহজ করে তোলা যায় তা নিয়ে আলোচনা করেছি। 

বাড়ি বিক্রি করার সময় যেই ভুলগুলোর কথা মাথায় রেখে আগাতে হবেঃ 

১. আবেগপ্রবণ হয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া

প্রথমবার বাসা বিক্রি করার সময় আবেগ নিয়ন্ত্রণ করাটা কিছুটা কঠিন হতে পারে। হয়তো আপনি এই বাসাটা বানানোর সময় অনেক সময় নিয়েছিলেন, বা আসবাবপত্রগুলো কিনেছিলেন ধীরে-সুস্থে এছাড়াও থাকতে পারে হাজারো ব্যক্তিগত স্মৃতি। সব কিছু মিলিয়েই বিদায় বেলায় কখনো কখনো আমরা সকলেই কমবেশি আবেগি হয়ে পড়ি।

তবে এটা অসম্ভব কিছুই না, বাসা বিক্রি করার জন্য মনঃস্থির করে ফেললে বাসার মালিকের মত না ভেবে একজন ব্যবসায়ী হিসেবে ভাববার চেষ্টা করুন। ব্যবসায়িক দৃষ্টিকোণ আপনাকে আপনার আবেগের জায়গা থেকে সরিয়ে আনতে সক্ষম হবে।  

অনেক ক্রেতাও এত বড় সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে আবেগি থাকতে পারেন। আপনি মনে রাখার চেষ্টা করুন যে আপনি হয়তো এই প্রপার্টি বিক্রি করার মাধ্যমে আরও ভালো জীবনযাপন প্রত্যাশা করছেন, এতে করেই আপনার মধ্যে আপনার বাসাকে আরও ভালো উপায়ে উপস্থাপন করে সেখান থেকে ভালো দাম পাওয়ার একটা চেষ্টা কাজ করবে। বাসায় আনা ছোট ছোট পরিবর্তন আপনাকে অনেক ভালো দাম পেতে সাহায্য না করলে আপনার আবেগই মনকে সেখান থেকে কিছুটা হলেও দূরে সরিয়ে রাখবে। 

২. রিয়েল এস্টেট এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া বা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত

আমাদের দেশে সচরাচর রিয়েল এস্টেট এজেন্টরা কাজ পরবর্তী সময়ে বাসা বা বাড়ি বিক্রির মূল দামের ৩-৫ শতাংশ ফি নিয়ে থাকেন। এটা যদি আপনার প্রথমবার হয়ে থাকে, তাহলে আমাদের মতে আপনার একজন রিয়েল এস্টেট এজেন্ট  নিয়োগ দেওয়া উচিত। পাশাপাশি একজন রিয়েল এস্টেস্ট এজেন্ট আপনাকে বর্তমান বাজার অনুযায়ী বিক্রির জন্য একটি সুস্পষ্ট নির্দেশনা দিতে পারবেন। 

একজন অভিজ্ঞ এজেন্ট আপনার সমস্ত চাহিদা এবং ইচ্ছে সহজেই অনুধাবন করতে পারবেন। আপনার সকল প্রত্যাশা অনুযায়ী তারা সহজেই আপনার প্রপার্টির একটি সঠিক দাম নির্ধারণ করে দেবেন। এছাড়াও তারা আপনার সকল গ্রাহকদের সাথে নিজে কথা বলার মাধ্যমে আপনার মনস্তাত্ত্বিক অবস্থান স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করবেন। 

এজেন্টরা সচরাচর দরদাম করা নিয়ে অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন যা আপনাকে আপনার কাঙ্খিত মূল্য পেতে সাহায্য করবে। অবশেষে, এজেন্টরা আবাসন খাতে বেচাকেনা করার জন্য প্রয়োজনীয় সকল কাগজাদি সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখেন, যা নির্বিঘ্নে আপনার কাজ এগিয়ে নিতে সহায়ক হবে। 

৩. সঠিক মূল্যমান নির্ধারণ না করতে পারা

আপনি নিজ চেষ্টায় কিংবা এজেন্টের সাহায্য নিয়ে যেভাবেই আগাতে চান, সঠিক দাম নির্ধারণ করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যেহেতু গ্রাহকেরা প্রপার্টি কেনার আগে বাজারের বর্তমান অবস্থা নিয়ে জানাশোনা করেই আসেন, তাই এখানে অন্যান্য বিক্রেতার থেকে আপনাকে বেশ খানিকটা এগিয়ে থাকতে হবে। 

আমাদের দেশের আবাসন খাত বেশ প্রতিযোগীতাপূর্ণ তাই সচরাচর এখানে সঠিক দাম না ঠিক করা হলে, প্রপার্টি বিক্রি করা বেশ কঠিন একটি কাজ। তবে কিছুটা কম দামে আপনার প্রপার্টি লিস্টিং করা হলেও আপাত দৃষ্টিতে খুব একটা সমস্যা নেই, এতে করে অধিক সংখ্যক গ্রাহকদের আকর্ষণ করার পাশাপাশি সঠিক দাম পাওয়া পর্যন্ত আলোচনা করার সুযোগ থাকে।

এটি আপনার বাসা কিংবা অ্যাপার্টমেন্ট বিক্রি উভয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য কারণ অতিরিক্ত দামের কারণে অনেকেই মুখ ফিরিয়ে নিবেন। 

৪. মার্কেটপ্লেসে ছবি না দেওয়া

আজকের দিনে বেশিরভাগ ক্রেতাই অনলাইন মার্কেটপ্লেসে আবাসন বিজ্ঞাপন দেখতে পছন্দ করেন, এক্ষেত্রে তারা অনেকাংশেই ছবি দেখে মনঃস্থির করে থাকেন, তাই আপনার বাসার ছবি না থাকলে আপনার বিক্রি বিলম্ব হতে পারে। ছবি তোলার ক্ষেত্রে দিনের আলোতে মানসম্মত ছবি তোলার চেষ্টা করুন।   

ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স ব্যবহার করার চেষ্টা করে দেখতে পারেন এতে করে গ্রাহকদের আপনার বাসার প্রতিটি রুম দেখতে কেমন সেই সম্পর্কে একটি ভালো ধারণা তৈরি হবে। এছাড়াও আপনি ছবি তোলার জন্য পেশাদার ফটোগ্রাফারদের সাহায্য নিতে পারেন। 

তবে শুধুমাত্র স্বাভাবিক ছবি না তুলে চেষ্টা করুন ৩৬০ ডিগ্রিতেও কিছু ছবি তুলে রাখতে এতে করে আপনার বাসার ভিউ কিংবা দেখতে কেমন তা সম্পর্কে একটা আগ্রহী ক্রেতারা ধারণা পাবেন। ছবি তোলার এই প্রক্রিয়াটি আপনি আপনার স্মার্টফোন ব্যবহার করেই করতে পারবেন।   

৫. সমস্যা এড়িয়ে যাওয়া

আপনি প্রপার্টির কোনো সমস্যা এড়িয়ে বা লুকিয়ে রেখে তা ভালো দামে বিক্রি করতে পারবেন না। ক্রেতারা সঠিক উপায়ে যাচাই করলে সমস্যাগুলো বের হয়ে আসতে পারে। তাই যদি কোনো ইস্যু থেকে থাকে, তা আপনি তিনটি ভিন্ন উপায়ে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনঃ 

  • বিক্রি করার আগেই তা সারিয়ে ফেলতে পারেন,
  • কিছুটা কম দামে বিক্রি করে ফেলতে পারেন, অথবা
  • স্বাভাবিক দামে বিক্রি করার পর ক্রেতাকে সারিয়ে নেওয়ার সময় সাহায্য করতে পারেন

মনে রাখতে হবে, বাসা সংক্রান্ত সমস্যাগুলো এড়িয়ে গেলে, ক্রেতা আপনার চাওয়া মূল্য নাও দিতে রাজি হতে পারে।   

৬. বিক্রির জন্য সঠিক প্রস্তুতি না নেওয়া

বিক্রির আগে বাসা ঠিক ভাবে পরিষ্কার এবং সাজিয়ে রাখুন। এক্ষেত্রে একজন পেশাদারের সাহায্য নিতে পারেন, তবে নিজে থেকে করতে চাইলেও সমস্যা নেই। বাসার বেশিরভাগ কাজই আপনি নিজেই করতে পারবেন। তবে টুকিটাকি এই কাজগুলো না করলে তা আপনার নির্ধারিত মূল্য না পাওয়ার অন্তরায় থাকতে পারে, এমনকি সময় মতো আপনার বাসা বিক্রি নাও হতে পারে এই কারণে। 

আপনার কিছু বন্ধুবান্ধব বা আপনার এজেন্টকে ডেকে আনুন এবং তাদের চোখে আপনার বাসা পর্যবেক্ষণ করুন যাতে কোনো ত্রুটি থাকলে তা চোখে পড়ে। যেহেতু আপনি দীর্ঘদিন আপনার বাসার সাথেই থেকেছেন, তাই কিছু জিনিস আপনার চোখ এড়িয়ে যাওয়া স্বাভাবিক। সর্বোপরি সঠিক ভাবে বাসা পরিষ্কার পরিছন্ন করে রাখা এবং বাসার দেওয়ালে নতুন রং এর ছোঁয়া সহজেই ক্রেতার মনোযোগ আকর্ষণে সক্ষম হবে।  

শেষকথা

পরিশেষে বাসা বিক্রি করার নিয়ম কানুন জেনে রাখাটা গুরুত্বপূর্ণ। তাই আপনি মানসিক ভাবে এবং অর্থনৈতিক ভাবে তৈরি তা নিশ্চিত করুন যাতে উপরে উল্লেখিত ভুলগুলো না হয়। 

আবাসন খাত নিম্নমুখী থাকার কারণে মার্কেটপ্লেসে দীর্ঘ সময়ের জন্যে আপনার বাসা বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে কোনো আগ্রহী ক্রেতা নাও পেতে পারেন। তবে দীর্ঘদিন যাবত কোনো ফোন কল বা ম্যাসেজ না পেলে আপনি নতুন করে কিছু ছবি এবং দাম কিছুটা পরিবর্তন করে দেখতে পারেন। 

সর্বোপরি আপনি যদি বাসা বিক্রি করার সময়ে এই ভুলগুলো না করে থাকেন, আমরা আশাবাদী আপনি সহজেই এবং নির্ঝঞ্ঝাট ভাবেই আপনার বাসা বিক্রি করতে সমর্থ হবেন। 

Facebook Comments
সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

আরও দেখুন

অনুরূপ লেখা গুলো

Back to top button
Close
Close