টিপস ও গাইডপ্রপার্টি

পুরোনো ফ্ল্যাট কেনার কথা ভাবছেন? যেই ৩টি জিনিস মনে রাখা জরুরি

প্রপার্টি স্বভাবতই যে কারো জন্য চমৎকার একটি বিনিয়োগ। একজন বাসার মালিক হওয়ার চেয়ে বড় গর্বের জিনিস খুব কম কিছুতেই আছে। 

তবে বর্তমান সময়ে ফ্ল্যাট কেনা কিছুটা চ্যালেঞ্জিং। সম্পত্তির দাম যেমন আকাশচুম্বী তেমনি মাথাপিছু গড় আয় তুলনামূলকভাবে অপরিবর্তিত রয়েছে, আর সেজন্যেই সাশ্রয়ী মূল্যের মধ্যে বিক্রির জন্য অ্যাপার্টমেন্ট খুঁজে পাওয়া অনেকের জন্যই কষ্টসাধ্য।

তবে আশার কথা এই যে, পুরোনো ফ্ল্যাট কেনা হয়ে উঠতে পারে বিনিয়োগের নতুন মাধ্যম। নতুন অ্যাপার্টমেন্ট, জমির মতোই পুরোনো ফ্ল্যাটও আপনাকে দেবে বিভিন্ন প্রিমিয়াম সুবিধা। যদিও পুরোনো ফ্ল্যাট কেনার বিভিন্ন সুবিধা বিদ্যমান, তবে পাশাপাশি রয়েছে বেশ কিছু অসুবিধাও। তাই আপনার সদ্য কেনা পুরোনো ফ্ল্যাটের ক্ষেত্রে এই সমস্ত অসুবিধা এড়িয়ে চলতে মাথায় রাখতে হবে বেশ কিছু জিনিস। 

আমাদের আজকের লেখার মাধ্যমে জেনে নিন, পুরোনো ফ্ল্যাট কেনার ক্ষেত্রে যেই তিনটি সতর্কতা মাথায় রাখতে হবে।

পুরোনো ফ্ল্যাটে বিনিয়োগের সুবিধা

শহুরে ও উন্নত এলাকার ক্ষেত্রে পুরোনো ফ্ল্যাট হতে পারে বিনিয়োগের দুর্দান্ত মাধ্যম। ক্রমাগত জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে আবাসনের চাহিদাও বাড়ছে। শুধুমাত্র ঢাকা শহরের কথা চিন্তা করলেই দেখা যাবে – উন্নত কাজের সুযোগ এবং উচ্চতর জীবনযাত্রার সাথে তাল মিলিয়ে দ্রুত ঘনবসতিপূর্ণ হয়ে উঠার কারণে এই মেট্রোপলিটন এলাকার প্রায় প্রতিটি জায়গাতেই রয়েছে বিল্ডিং।

এসকল বিল্ডিং-এর ভিড়ে নতুন ফ্ল্যাট খুঁজে পাওয়া এবং বিনিয়োগ করা দুটোই কঠিন। আর সেজন্যেই আমরা পুরোনো ফ্ল্যাট কেনাকে আপনার প্রপার্টি ইনভেস্টমেন্ট হিসেবে বিবেচনা করতে উৎসাহিত করছি। এছাড়াও অন্যান্য যেসকল সুবিধা পাওয়া যাবেঃ

জমি কেনা বা ফ্ল্যাট বানানোর ঝামেলা নেই

একটি পুরোনো ফ্ল্যাটের অর্থ হলো আপনি একটি সম্পূর্ণ ফাংশনিং একটি অ্যাপার্টমেন্ট পাবেন, অর্থাৎ মালিকানা আপনার কাছে হস্তান্তর হওয়ার সাথে সাথে সেটি ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত। ফ্ল্যাট তৈরি করার মতো ঝামেলা যেমন নেই তেমনি বিনিয়োগের প্রায় সাথে সাথেই পেয়ে যাবেন তা উপভোগ করার অবকাশ।

পুরোনো ফ্ল্যাট কেনার আরেকটি সুবিধা হলো আপনাকে জমি-সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিকতা বা নির্মাণ খরচ এবং ঝামেলা সম্পর্কে চিন্তা করতে হবে না – কারণ ইতিমধ্যেই এর পূর্ববর্তী মালিক এবং ডেভেলপাররা এসব ঝামেলা পেরিয়ে এসেছেন। উপরন্তু, পুরোনো ফ্ল্যাটগুলোতে অনেক সময় আধুনিক ইউটিলিটি ব্যবহারের করার মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য সংস্কার করা হয়ে থাকে, যা আপনি কেনার মাধ্যমে একবারেই পেয়ে যাবেন।

নতুন ফ্ল্যাটের চেয়ে পুরোনো ফ্ল্যাট বেশ সাশ্রয়ী

প্রপার্টি বা নতুন অ্যাপার্টমেন্ট কেনার চাইতে, পুরোনো অ্যাপার্টমেন্ট তুলনামূলকভাবে সস্তা দামে পাওয়া যায়। অপরদিকে নতুন ফ্ল্যাট কেনার আগে আপনাকে ডেভেলপারদের কাছে যেতে হবে। যেহেতু ডেভেলপাররা ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কে অবগত, তাই তারা অনেক সময় চড়া মূল্য চার্জ করতে পারে এবং ছাড় দিতে আগ্রহী নাও হতে পারে। অন্যদিকে, পুরোনো ফ্ল্যাটগুলি আপনি সরাসরি তাদের মালিকদের কাছ থেকে কিনতে পারবেন এবং যেহেতু তারা ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে অতটা চিহ্নিত না তাই পেয়ে যাবেন দাম নিয়ে আলোচনা করার সুযোগ।

অন্যান্য বেশিরভাগ জিনিসের মতোই পুরোনো ফ্ল্যাটের সুবিধা এবং অসুবিধা দুটোই রয়েছে। সাইন করার আগে সুবিধাগুলো যাচাই করে নেওয়ার পাশাপাশি সেখানে থাকা প্রধান সমস্যাগুলোও চিহ্নিত করুন।

পুরোনো ফ্ল্যাট কেনার ক্ষেত্রে যেই তিনটি শঙ্কার কথা মাথায় রাখা প্রয়োজন

১. অসম্পূর্ণ তথ্যাদি

প্রপার্টি কেনার পূর্বে সমস্ত নথিপত্র ঠিকঠাক না থাকাই সবচেয়ে বড় ভাবনার ব্যাপার। যেহেতু এই ধরনের প্রপার্টি কোনো অফিশিয়াল সোর্সের মাধ্যমে বিক্রি হয় না, তাই ডকুমেন্টেশন সঠিক কিনা তা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়াও আপনাকে যে ডকুমেন্টসগুলো দেওয়া হয়েছে সেগুলো আসল, সম্পূর্ণ এবং সঠিক অফিসিয়াল সংস্থার দ্বারা যথাযথভাবে প্রত্যয়িত কিনা সে সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে। প্রপার্টি-সম্পর্কিত ডকুমেন্টসগুলো সাধারণত কিছুটা জটিল ও টেকনিক্যাল হয়ে থাকে তাই একজন বিশ্বস্ত আইনজীবীর সাহায্য নিতে পারেন। 

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ফ্ল্যাটের বর্তমান মালিকানা। অনেক সময়, ফ্ল্যাট একাধিক ব্যক্তির মালিকানাধীন অবস্থায় থাকে, সেক্ষেত্রে নিশ্চিত করতে হবে যে মালিকানা হস্তান্তরের কাগজে প্রত্যেকের স্বাক্ষর রয়েছে।

২. ফ্ল্যাটের অবস্থান এবং বর্তমান কন্ডিশন

আপনি যেহেতু বিনিয়োগের জন্য সেকেন্ড-হ্যান্ড অ্যাপার্টমেন্টের কথা বিবেচনা করছেন, সেক্ষেত্রে আপনার কাছে সঠিক মূল্য নেওয়া হচ্ছে কি না সেটি নিশ্চিত করার জন্য কেনার পূর্বেই স্ব-শরীরে জায়গাটি দেখে নেওয়া ভালো। জায়গাটি নিরীক্ষণের জন্য বিশেষজ্ঞ কাউকে নিয়োগ করতে পারেন- বিশেষত পানির লাইন, কারেন্টের লাইন, এবং অন্যান্য যন্ত্রাদি ঠিকঠাক অবস্থায় আছে কিনা দেখে আসার জন্য। অভিজ্ঞ কারও মতামত নিলে যেমন বড় ধরণের কোনো সমস্যা রয়েছে কিনা সেটি যেমন জানা যাবে, তেমনি দাম নিয়ে আলোচনা করার সময় সুবিধা পাবেন। 

প্রপার্টি কেনার সময় প্রপার্টির অবস্থান জেনে সেটি আপনার জন্য উপযুক্ত কিনা তা যাচাই করা গুরুত্বপূর্ণ। ব্যবহৃত ফ্ল্যাটটি কি কোনো প্রত্যন্ত অঞ্চলে নাকি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত শহরাঞ্চলে অবস্থিত? নানান ধরণের সুবিধা থাকার কারণে কিছু এলাকায় প্রপার্টির দাম তুলনামূলক বেশি হতে পারে। তাই কেনার সময় আপনার জন্য প্রযোজ্য সুবিধাগুলোর কথা মাথায় রেখে কেনা ভালো। আপনি ফুল-টাইম চাকরিতে থাকলে, আপনার অফিসের আশেপাশেই বাসা খোঁজার চেষ্টা করুন। পাশাপাশি পরিবারের সাথে থাকলে, স্কুল, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশে বাসা নিতে পারেন যাতে করে আপনার ছেলে/মেয়ে সহজেই যাতায়াত করতে পারে।

অনেক পুরোনো কোনো জায়গায় ফ্ল্যাট বিক্রির ভালো চুক্তি পেলে, ধরে নিতে হবে এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো কারণ আছে। হয়তো সেই জায়গাটিই আর বসবাসের উপযুক্ত নয়।

৩. বন্ধক ও অন্যান্য আর্থিক বিষয়াদি

আমাদের দেশে বিভিন্ন কমার্শিয়াল ব্যাংকের পক্ষ থেকে হোম লোন একটি জনপ্রিয় সার্ভিস। তারা বিভিন্ন EMI সুবিধা দিয়ে থাকে যাতে গ্রাহকরা শুরুতেই একটি বড় ডাউন পেমেন্ট করতে পারেন এবং সময়ের মধ্যেই লোনের টাকা পরিশোধ করা সম্ভব হয়। এছাড়াও অন্যান্য আর্থিক সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে বন্ধকীতে ফ্ল্যাট কেনা এবং মাসিক কিস্তিতে মূল্য পরিশোধ করার সুযোগ।

মনে রাখতে হবে, সবাইকে লোন দেওয়া হয় না। আপনি লোন পাবেন কিনা সেটি যাচাই করতে ব্যাংকগুলো আপনার প্রোফাইল ও ব্যাকগ্রাউন্ড সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে থাকে। সর্বোপরি খুব অল্প সংখ্যক মানুষই ব্যাংক লোন পেয়ে থাকে।

ব্যাংক থেকে লোন না পেলে আপনি কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। পুরোপুরি নিজের জমানো টাকা দিয়ে ফ্ল্যাট কেনা কিছুটা কঠিন, সেক্ষেত্রে আপনার সঞ্চয় কেমন সেটির উপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। প্রপার্টি ক্রয় করা বাধ্যবাধকতা নয়, বরং ভাড়ার জন্য ফ্ল্যাট খুঁজে নেওয়া অনেক সময় আপনার জন্য সাশ্রয়ী হতে পারে এবং এটি বাড়তি আর্থিক চাপ থেকে আপনাকে মুক্ত রাখতে পারে।

উপসংহার

নিজের নামে একটি প্রপার্টি থাকা দারুণ একটি অভিজ্ঞতা। অনেকের কাছেই এটি পুরো জীবনের সাধনার মতো একটি ব্যাপার। পুরোনো কিংবা নতুন; যাই হোক না কেন, ফ্ল্যাট আপনার এবং আপনার পরিবারের সদস্যদের জন্য নিঃসন্দেহে চমৎকার একটি বিনিয়োগ।

আমরা আশা করি আমাদের আজকের লেখাটি আপনাকে ফ্ল্যাট কেনার পূর্বের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করতে সাহায্য করবে। এছাড়াও আপনার নিজস্ব রিসার্চ এবং এক্সপার্টদের মতামত আপনাকে এই ব্যাপারে সাহায্য করতে পারে।
সারা বাংলাদেশ থেকে বিক্রির জন্য প্রস্তুত নতুন ও পুরোনো ফ্ল্যাটের লিস্টিং দেখতে আজই ভিজিট করুন – Bikroy.com!

সর্বশেষ বিজ্ঞাপনগুলি ব্রাউজ করুন:
বনানী ১১ নং সড়ক সংলগ্ন এ 2244 SFT Used Flat Urgent Sale!!!
Dhaka, Apartments For Sale
Tk 21,000,000 total price
READY FLAT SALE
Dhaka Division, Apartments For Sale
Tk 3,800 per sqft
1938 sft @ Purana Paltan Luxarious Flat Ongoing
Dhaka, Apartments For Sale
Tk 9,300 per sqft
1550 বর্গফুট @ ব্যাংক ঋণ সুবিধা মুনসুরাবাদ ফ্ল্যাট বিক্রি
Dhaka, Apartments For Sale
Tk 4,500 per sqft
Full Interior 1435 sft @ Mugda
Dhaka, Apartments For Sale
Tk 6,542 per sqft
View all 7149 ads..

ঢাকা এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাটচট্টগ্রাম এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাট
ঢাকা বিভাগ এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাটখুলনা বিভাগ এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাট
সিলেট এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাটচট্টগ্রাম বিভাগ এ বিক্রির জন্য ফ্ল্যাট

Facebook Comments
সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

আরও দেখুন

অনুরূপ লেখা গুলো

Back to top button
Close
Close