চাকরি

চাকরিতে আবেদন করার সময় এই ৮টি ব্যাপারে খেয়াল রাখা উচিত

ক্যারিয়ারের বিভিন্ন পর্যায়ে আমাদের ভিন্ন ধরণের প্রতিষ্ঠানে চাকরি করার অভিজ্ঞতা হয়। প্রতিটি ক্ষেত্রেই কিন্তু একটি পদের জন্য আবেদনকারী হিসেবে আমাদের প্রতিযোগিতা করতে হয় শত শত প্রার্থীদের সাথে। এই প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ চাকরির বাজারে টিকে থাকতে হলে শুধুমাত্র শিক্ষাগত যোগ্যতার উপর ভিত্তি করলেই হবে না, আপনাকে যথেষ্ট কৌশলী এবং দূরদর্শীতার পরিচয়ও দিতে হবে। বিভিন্ন পরিস্থিতিতে মানিয়ে চলার জন্য নিজেকে গড়ে তুলতে হবে, তবেই আপনি হয়ে উঠতে পারবেন নিয়োগকারীদের কাছে অনন্য। চাকরিতে আবেদন করার প্রক্রিয়ায় সময়ের সাথে সাথে আপনি কোন নিয়মে এগোতে চাচ্ছেন তা কিছুটা আপগ্রেড বা পরিবর্তন করতে হবে।  আজ আমরা আলোচনা করবো এমন কিছু পদক্ষেপ নিয়ে যা আপনার পছন্দের চাকরি খুঁজে পেতে সাহায্য করবে।

যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরির পদ নির্বাচন করুন

প্রথমত আপনি কোন ইন্ডাস্ট্রি বা কোন সেক্টরে কাজ করতে আগ্রহী তা বিবেচনা করতে হবে। আপনি আপনি কোন ধরনের বা কোন পদে চাকরি করতে চান তা নির্দিষ্ট করে ভাবুন। যেই পদে আবেদন করতে চাচ্ছেন তার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ভালোভাবে পড়ে দেখুন। সেখানে উল্লেখ করা কাজের বিবরণীর সাথে আপনার দক্ষতা এবং যোগ্যতা মিলছে কিনা সে বিষয় যাচাই করুন। চাকরি থেকে আপনার কী প্রত্যাশা রয়েছে সেটাও চিন্তা করুন। কর্মঘণ্টা, লোকেশন, বেতন ইত্যাদি ক্ষেত্রে নিশ্চিত হয়ে তবেই আবেদন করুন।

সিভি এবং কভার লেটার আপডেট করুন

চাকরির আবেদনের ক্ষেত্রে সিভি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিয়োগকারীর সাথে আপনার সর্বপ্রথম যোগসূত্রের মাধ্যম এই সিভি। এই সিভির মাধ্যমেই আপনাকে যাচাই করে তবেই পরবর্তী ধাপটির জন্য আপনাকে বিবেচনা করা হবে। তাই একটি নির্ভুল ও তথ্যবহুল সিভি লেখার ব্যাপারে বিশেষ লক্ষ্য রাখতে হবে। সিভিতে আপনার সকল তথ্যের বানান, ছবি, ফন্ট ও ফরম্যাট ইত্যাদি ঠিক আছে কিনা খেয়াল রাখুন। আপনার সাথে যোগাযোগের মাধ্যম অর্থাৎ ইমেইল, ফোন নাম্বার ইত্যাদি ঠিক আছে কিনা দেখে নিন। সেই সাথে শিক্ষাগত যোগ্যতা, কাজের অভিজ্ঞতা, দক্ষতা, রেফারেন্স ইত্যাদি উল্লেখ করুন। কোনো সার্টিফিকেট বা অ্যাওয়ার্ড পেয়ে থাকলে সেটিও উল্লেখ করুন। একটি সিভি দিয়ে ভিন্ন পদে আবেদন না করে একেক কোম্পানির চাকরিভেদে ভিন্ন ধরণের সিভি তৈরি করুন এবং সেই অনুযায়ী আপনার যোগ্যতা এবং দক্ষতাগুলো হাইলাইট করুন। সিভির পাশাপাশি আর একটি গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট হলো কভার লেটার। প্রতিষ্ঠানটির ভিশন ও মিশন কীভাবে আপনার মূল্যবোধের সাথে যায়, আপনি কীভাবে কোম্পানির জন্য একটি সম্পদ হতে পারেন, এই পদে কাজ করে আপনি কি অর্জন করতে চাচ্ছেন, কেন উক্ত পদে অন্যান্য প্রার্থীদের তুলনায় আপনাকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত, ইত্যাদি কভার লেটারে লিখুন। প্রয়োজনে বিশ্বস্ত কাউকে দিয়ে সিভি এবং কভার লেটারটি পুনরায় চেক করিয়ে নিতে পারেন। একটি আকর্ষণীয় সিভি এবং কভার লেটার আপনাকে নিয়ে যাবে বহুদূর।

সিভিতে রেফারেন্স যোগ করুন

চাকরির ক্ষেত্রে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো রেফারেন্স বা সুপারিশ। সিভিতে দুই থেকে তিনজন ব্যক্তির রেফারেন্স যোগ করে নিন। যাকে রেফারেন্স হিসেবে দিতে চান, তাঁকে এ সম্পর্কে অবগত করুন যাতে কোম্পানি থেকে যোগাযোগ করা হলে তিনি আপনার সম্পর্কে ভালো তথ্য দিতে পারেন। যাদের রেফারেন্স দিতে চান তাঁদের তথ্য নির্ভুল ও সঠিক কিনা তা জেনে নিন। রেফারেন্সে উল্লেখ করা ব্যক্তিদের ইমেইল অ্যাড্রেস, বাসার ঠিকানা, ফোন নাম্বার, পদমর্যাদা, বর্তমান কোম্পানির নাম যেন সঠিক থাকে তার দিকে নজর রাখুন।

অনলাইন প্রোফাইল আপডেটেড রাখুন

চাকরি খোঁজার প্রক্রিয়া এখন অনেকটাই অনলাইন নির্ভর হয়ে গিয়েছে। এক ক্লিকে আপনি যেমন ইন্টারনেট থেকে কোম্পানির ব্যাপারে জানতে পারবেন, তেমনি নিয়োগকারীও আপনার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল ঘুরে জেনে নিতে পারবেন অনেক তথ্য। সুতরাং প্রফেশনাল প্ল্যাটফর্ম যেমন লিংকডইন প্রোফাইল এর তথ্য হালনাগাদ রাখুন। এছাড়াও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অর্থাৎ ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার ইত্যাদি প্রোফাইলে যেকোনো ধরনের তথ্য শেয়ার বা প্রচারে সচেতন হোন।

ইন্টারভিউ পূর্ববর্তী প্রস্তুতি নিন

ইন্টারভিউ হচ্ছে প্রার্থী বাছাই করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও কার্যকরী মাধ্যম। ইন্টারভিউ মুখোমুখি, ফোন, বা অনলাইন – যেভাবেই হোক না কেন, এর জন্য চাই সঠিক প্রস্তুতি। বাসায় বসেই নিতে পারেন এই ইন্টারভিউ পূর্ববর্তী প্রস্তুতি। ওয়েবসাইট বা অন্যান্য সাইট থেকে প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে গবেষণা করে যান। এতে ইন্টারভিউয়ে আপনার কোনো প্রশ্ন থাকলে তা জেনে নিতে সুবিধা হবে আর এতে আপনার একাগ্রতাও প্রকাশ পাবে। পরিচিতি পর্বে নিজের সম্পর্কে এমন কিছু বলতে চেষ্টা করুন যা সিভিতে লেখা নেই। প্রায়ই জিজ্ঞাসা করা হয় এমন সাধারণ কিছু প্রশ্নের উত্তর আগে থেকেই ঠিক করে যান। নিজেকে যোগ্য কেন দাবি করছেন, এর জন্য আপনার কাজের অভিজ্ঞতার আলোকে কয়েকটি বাস্তব উদাহরণও ঠিক করে রাখুন। নিয়োগকারীরা সাধারণত উত্তরের পাশাপাশি মুখভঙ্গি, বাচনভঙ্গি, বসার ধরন ইত্যাদি বিষয়েও লক্ষ্য করে থাকেন। তাই ইন্টারভিউ বোর্ডে নিজেকে আত্মবিশ্বাসী হিসেবে তুলে ধরুন।

পেশাদারিত্বের ভাব ফুটিয়ে তুলুন

ইন্টারভিউ বোর্ডে আপনার নিয়মানুবর্তীতা আপনার পেশাদারিত্বের প্রথম প্রমাণ দিবে। তাই তাড়াহুড়ো করে নয়, লোকেশন বুঝে সময় নিয়ে ঘর থেকে বের হোন। লোকেশন বুঝতে অসুবিধা হলে গুগল ম্যাপ অথবা কোম্পানির সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির কাছ থেকে আগে থেকেই জেনে রাখুন এলাকাটি এবং সেখানকার ট্রাফিক অবস্থা সম্পর্কে। পরিপাটি ও মার্জিত আউটলুক বেশ গুরুত্বপূর্ণ। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, রুচিশীল এবং ফর্মাল পোশাক পরে যান। চুল, অলংকার এবং জুতার দিকেও মনোযোগ দিন। কী পরে যাবেন তা আগে থেকেই ঠিক করে রাখা ভালো।

নিজের দক্ষতা বাড়ান

নতুন নতুন দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে একজন মূল্যবান সম্পদে পরিণত হোন। বিভিন্ন অনলাইন ট্রেনিং, সেমিনার, ওয়ার্কশপ এ অংশগ্রহণ করুন। সেখান থেকে আপনি ইন্টারভিউয়ের দক্ষতা বৃদ্ধি, নিজেকে সুন্দর করে উপস্থাপনের টিপস, নেটওয়ার্কিং এবং অনলাইন টুল ব্যবহার ইত্যাদি নানান বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। যা আপনার পেশাগত উন্নয়নে সাহায্য করবে।

নেটওয়ার্কিং গড়ে তুলুন

চাকরি খোঁজা বেশ সময়সাপেক্ষ একটা ব্যাপার, তাই মানসিকভাবে আপনাকে শক্ত থাকতে হবে। কাছের বন্ধুবান্ধব, পরিবারের সদস্য, শিক্ষক, মেন্টর, পূর্বের অফিসের বস এবং সহকর্মীদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। তাঁরা আপনার মনোবল দৃঢ় রাখতে সাহায্য করবে। তাঁদের কাছে চাকরি এবং ক্যারিয়ার বিষয়ে পরামর্শ চান। চাকরি খোঁজার এই সফরে কোনোভাবেই লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়া যাবে না। এক্ষেত্রে আপনাকে সহনশীল এবং নমনীয়তার পরিচয় দিতে হবে।

শেষকথা

আশা করি চাকরিতে আবেদন করার সময় কার্যকরী এই টিপস ভবিষ্যতে আপনার কাজে আসবে। আবেদন করা থেকে শুরু করে নতুন চাকরিতে যোগদান পর্যন্ত পদে পদে রয়েছে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ। আপনাকে সবসময় আশাবাদী থাকতে হবে এবং কোনো জায়গায় চাকরি না হলেও ভেঙ্গে পড়বেন না। এ থেকে নতুন কী শিখলেন তা নিয়েই সামনে এগিয়ে যেতে হবে। ভালো-মন্দ প্রতিটি অভিজ্ঞতাই আপনাকে পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে সহায়তা করবে।

চাকরি খুঁজছেন? সারা দেশের অসংখ্য স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান থেকে দেয়া চাকরির বিজ্ঞাপন খুঁজে পেতে আজই ব্রাউজ করুন Bikroy.com/Jobs

শুভকামনা রইলো আপনার জন্য!

সাবস্ক্রাইব করুন

No spam guarantee.

আরও দেখুন

অনুরূপ লেখা গুলো

Back to top button
Close
Close