দেশের প্রথম সারির চারটি ওয়েবসাইটের একটি Bikroy, শীর্ষে ফেসবুক

top of mind

বাংলাদেশে ইন্টারনেট সাইট ব্যবহারের প্রবণতা বুঝার জন্য সম্প্রতি ১০০০ জন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর উপর মিলওয়ার্ড ব্রাউন একটি জরিপ পরিচালনা করেন। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের কাছে সেই সব ওয়েবসাইটের কথা জানতে চাওয়া হয় যা তাদের পছন্দের এবং বারবার ভিজিট করেন, এটা একেবারেই অবাক হওয়ার মত কিছু নয় যে তাদের পছন্দের শীর্ষে ছিল ফেসবুক। দুই নম্বরে গুগল আর তিন নম্বরে ছিল ইউটিউব। তবে সুখবর হল, স্থানীয় সকল ওয়েবসাইটের মধ্যে ইনস্টাগ্রাম, টুইটার লিংকড ইনের মত ওয়েবসাইটগুলোকে ছাড়িয়ে দেশের সিংহভাগ মানুষের টপ অব মাইন্ডের চতুর্থ অবস্থানে আছে Bikroy গুগল ইউটিউব গত বছরের তুলনায় বছর ভাল অবস্থানে আছে, অন্যদিকে ফেসবুক এবং Bikroy-এর ক্ষেত্রে কিছুটা বিপর্যয় দেখা যাচ্ছে।

সকল ওয়েব সাইটের টপ অফ মাইন্ড শেয়ার :

বিপর্যয় স্বত্ত্বেও, ফেসবুক, গুগল ইউটিউবের পর Bikroy কেবল সবার সেরা পছন্দই নয়, বরং মাইন্ডশেয়ারের ক্ষেত্রে অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী এখানেই ডট কমের চেয়ে Bikroy বরাবরই চমৎকারভাবে এগিয়ে আছে। Bikroy.com শতকরা ৮৫ ভাগ মাইন্ডশেয়ার নিয়ে দেশের যে কোন বেচাকেনা অনলাইন সাইটগুলো থেকে এগিয়ে রয়েছে। বছর যদিও কিছুটা বিপর্যয় ঘটেছে, তবুও যাত্রার শুরু থেকেই বাংলাদেশের বাজারে শীর্ষ অনলাইন বেচাকেনা ওয়েবসাইট ছিল Bikroy.com 

বাংলাদেশের সকল অনলাইন মার্কেটপ্লেসের টপ অফ মাইন্ড শেয়ার:

top of mind online marketplace

এ বছরও, Bikroy ধারাবাহিকভাবে শীর্ষে অবস্থান করছে এবং বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে Bikroy শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে। বিভিন্ন ক্যাটাগরীর মধ্যে ৭৫% উত্তরদাতার প্রথম পছন্দ হচ্ছে ইলেকট্রনিক্স/সাধারণ ক্যাটাগরি, ৬৪% এর প্রোপার্টি ক্যাটাগরি এবং ৬৮% যানবাহন ক্যাটাগরি পছন্দ করেন। চাকরি ক্যাটাগরিতে বিডিজবস দীর্ঘদিন ধরে প্রথম অবস্থানে রয়েছে, ৬০% উত্তরদাতার এই সাইটটি পছন্দের তালিকায় প্রথমে রেখেছেন। এই ক্ষেত্রে Bikroy.com দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে, ২১% উত্তরদাতা এই সাইটটি প্রথম সাইট হিসেবে পছন্দ করেন, যেটা কী না গত বছরের তুলনায় ৬% বেশি এবং ৫০% উত্তরদাতা জব ক্যাটাগরির ক্ষেত্রে Bikroy.com-কে গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করেন।

Bikroy-এর কন্টাক্ট সেন্টার ডিরেক্টর নাজ হুসাইন বলেন, “মিলওয়ার্ড ব্রাউনের এই জরিপ প্রতিবেদনের ফলাফলে আমরা সত্যিই খুব আনন্দিত। যদিও আমরা মনে করি যে, আমাদের মার্কেটিং এবং পণ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রচেষ্টাগুলো সঠিক নির্দেশনায় পরিচালিত হয়েছে। এটা সহজেই অনুমেয় যে গত কয়েক বছর ধরে আমাদের কর্মকা- গ্রাহকদের সন্তুষ্ট করতে পেরেছে। এই প্রতিবেদনটি আগামীতে নির্ভরযোগ্য ক্রয় ও বিক্রয় সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি গ্রাহকদের অনলাইন সংক্রান্ত সকল বাধা দুর করতে সাহায্য করবে”।

Comments

comments