এলো স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮

Samsung note 8 Bangla

বিগত কিছু বছর ধরে ব্যবহারের সময় বেশ কিছু সংখ্যক গ্যালাক্সি নোট ৭ বিস্ফোরণ ঘটে ফেটে যাবার ঘটনায় স্যামসাং অনেক হাস্যকর সমালোচনার শিকার হয়ে আসছে। তবে এ বছরের শুরুতে গ্যালাক্সি এস ৮ রিলিজ করার সময় স্যামসাং কোম্পানি তাদের গ্যালাক্সি নোট ৭-এর দুর্ঘটনাগুলোর পরিপ্রেক্ষিতে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে। তবে বহু প্রতিক্ষিত গ্যালাক্সি নোট ৮ বাজারে ছাড়ার সময় ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা এবং সন্তুষ্টির দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বলে স্যামসাং ঘোষণা দিয়েছে। আগের সব অঘটন ছাপিয়ে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮ বাজারে এসেছে নতুন আঙ্গিকে। বিগত কিছু বছর ধরে ব্যবহারের সময় বেশ কিছু সংখ্যক গ্যালাক্সি নোট ৭ বিস্ফোরণ ঘটে ফেটে যাবার ঘটনায় স্যামসাং অনেক হাস্যকর সমালোচনার শিকার হয়ে আসছে। তবে এ বছরের শুরুতে গ্যালাক্সি এস ৮ রিলিজ করার সময় স্যামসাং কোম্পানি তাদের গ্যালাক্সি নোট ৭-এর দুর্ঘটনাগুলোর পরিপ্রেক্ষিতে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে। তবে বহু প্রতিক্ষিত গ্যালাক্সি নোট ৮ বাজারে ছাড়ার সময় ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা এবং সন্তুষ্টির দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বলে স্যামসাং ঘোষণা দিয়েছে। আগের সব অঘটন ছাপিয়ে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮ বাজারে এসেছে নতুন আঙ্গিকে।

গ্যালাক্সি নোট ৮-এর ডিএনএ এ বছরের শুরুতে বের হওয়া গ্যালাক্সি এস৮-এর মতই। এই স্যামসাং ফোন দুটো এমন একটি ডিজাইন ল্যাঙ্গুয়েজ অবলম্বন করেছে যাতে করে চওড়া অ্যাস্পেক্ট রেশিও ডিসপ্লে ব্যবহারকারীদের মূল আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাড়ায়। সরু এবং প্রায় চোখে পরে না এমন ফ্রেমযুক্ত কার্ভড স্ক্রীন এবং সবসময়ের আন্ডাররেটেড এস পেন মিলে যে বাহ্যিক কম্বিনেশন, সেটার অধীর অপেক্ষায় ছিল স্যামসাং ফ্যানরা। ফোনের কর্নারগুলো এখন আরও বেশি বর্গাকৃতির। পুরো সারফেস এরিয়াটি – যেখানে এস পেন ব্যবহার করা হবে তার সুবিধার্থে স্ক্রীনের ডিসপ্লে কার্ভেচারও কমিয়ে আনা হয়েছে।

note 8 camera

ডিজাইনের আরও একটি লক্ষণীয় ডিজাইন পরিবর্তন এবং উল্লেখ করার মত সংযোজন হল নোট ৮-এর পেছনে ডুয়াল ক্যামেরার উপস্থিতি। দুটো ক্যামেরাই ১২ মেগাপিক্সেল এবং অপটিকাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস) যুক্ত যা কিনা ফোনে ডুয়াল ক্যামেরার ক্ষেত্রে স্যামসাংই বাজারে নিয়ে এসেছে প্রথম সংস্করণ। ডুয়াল ক্যামেরার একটি ক্যামেরাতে আছে এফ/১.৭ অ্যাপারচার এবং অন্যটিতে আছে এফ/২.৪ অ্যাপারচারওয়ালা ২এক্স টেলিফটো লেন্স। লেন্স সেটআপটি অনেকটা আইফোনের মত যা হতাশ করার মত। এলজি, হুয়াওয়ে এবং এসেনশিয়ালের মত কিছু কোম্পানি প্রমাণ করেছে যে ২এক্স মোডে ছবিতে পাঞ্চ করা ছাড়াও দুটি ক্যামেরা সেন্সর অনেক সৃজনশীলভাবে ব্যবহার করা যায়। হুয়াওয়ে বেশি লাইট এবং ফটো ডিটেইল ক্যাপচার করার জন্য আরজিবি সেন্সরের সাথে মোনোক্রোম সেন্সর ব্যবহার করে। এছাড়া দুর্দান্ত সাদাকালো ছবি তোলার জন্য মোনোক্রম সেন্সর আলাদাভাবে ব্যবহার করা যাবে। অন্যদিকে এলজি তাদের দ্বিতীয় ক্যামেরায় সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ব্যবহার করেছে যার মাধ্যমে অসাধারণ ল্যান্ডস্কেপ এবং ক্লোজআপ শট নেয়া যাবে। যারা সবসময় ২এক্স জুম লেন্সের বিপক্ষে কথা বলেন তাদের মতে এটি একেবারেই উপযুক্ত নয়। কারো যদি আসলেই কোন সাবজেক্টে জুম করতে হয় তবে এটি সাধারণত ৩, ৪ বা তার বেশি ফ্যাক্টরের মাধ্যমে করা সম্ভব। অ্যাপেল এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮-এ এমন এক ধরণের সফটওয়্যার ফিচার আছে যা দুটো লেন্সের মাধ্যমেই ব্যাকগ্রাউন্ডকে ব্লার করে দেয়। স্যামসাং ইউজারদের সুবিধার্থে যে বিষয়টিতে নতুনত্ব এনেছে তা হল – কতটুকু ব্লার হবে তা নিয়ন্ত্রণ করা এবং ছবি তোলার পর ব্লারের পরিমাণ পরিবর্তন করা। ক্যামেরাগুলোর পাশেই রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। বেশিরভাগ ইউজারদের জন্যই এই প্লেসমেন্টটি অসুবিধাজনক। নোট ৮-এর আঁকার বড় হলেও এই প্লেসমেন্টটি একেবারেই সুবিধাজনক হয়নি।

note 8 soc

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮-এর হার্ডওয়্যার অনেকটাই গ্যালাক্সি এস৮-এর মত। গ্যালাক্সি নোট ৮-এ আছে কুয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর, ৬৪ গুইগাবাইট বিল্ট ইন স্টোরেজ এবং ৬ গিগাবাইট র‍্যাম। ব্যাটারি ৩,৩০০ এমএএইচ যা এস ৮+ এর ব্যাটারীর (৩,৫০০ এমএএইচ) চেয়ে কম হবার কারণে কিছুটা সমালোচনার মুখে পরেছে। মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট এবং ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন জ্যাক আবারও ফিরে এসেছে এই সংস্করণটিতে। নোট ৮ ওয়্যারলেস চারজিং সাপোর্ট করে। এছাড়াও এই ফোনে আরও আছে আইপি৬৮ ধুলাবালি এবং পানি রেজিস্টেন্স, ইউএসবি টাইপ সি, স্যামসাং পে এবং অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.১ নট প্রসেসর।

note 8 design

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮-এ ২০১৭ সালের ফ্ল্যাগশিপের সকল হলমার্ক ফিচারই রয়েছে। সুতরাং এই ফোনটি ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করাটাই স্বাভাবিক। এই ফোনটির বাজার মূল্য ১০০০ ডলার (বাংলাদেশে লঞ্চ করা হলে বাজার মূল্য ৯০,০০০ টাকা হবে বলে আশা করা যায়)। এটি নীল, কালো, ধূসর এবং সোনালি – এই চারটি রঙে পাওয়া যাবে। বাজারে অন্যান্য সমজাতীয় ফোনের তুলনায় দাম একটু বেশি বলে মনে হলেও সর্বস্বীকৃত অ্যান্ড্রয়েড ম্যানুফেকচারার ব্র্যান্ড হিসেবে স্যামসাং দিচ্ছে ৬.৩ ইঞ্চি ডিসপ্লে, এস পেন এবং সেরা ব্র্যান্ড লয়ালটি।

note 8 size

প্রধান স্পেসিফিকেশনসমূহ:

ডিসপ্লে

  • ৬.৩ ইঞ্চি কোয়াড এইচডি+ (২৯৬০*১৪৪০) সুপার অ্যামোলেড

প্রোসেসর

  • ইউএস: কুয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫
  • আন্তর্জাতিক: স্যামসাং এক্সিওন্স অক্টা কোর

স্টোরেজ

  • ৬৪ গিগাবাইট (ইউএস) / ১২৮ গিগাবাইট / ২৫৬ গিগাবাইট
  • মাইক্রো এসডি এক্সপ্যানশন

র‍্যাম

  • ৬ গিগাবাইট

ক্যামেরা

  • ব্যাক: ওআইএস সহ ডুয়াল ১২ এমপি ক্যামেরা, ওয়াইড অ্যাঙ্গেল এফ/১.৭, টেলিফটো এফ/২.৪
  • ফ্রন্ট: ৮ মেগাপিক্সেল এফ/১.৭

ব্যাটারী

  • ৩,৩০০ এমএএইচ

অন্যান্য

  • অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.১ নট
  • আইপি৬৮ ওয়াটার এবং ডাস্ট রেজিস্ট্যান্স
  • ওয়্যারলেস চারজিং
  • স্যামসাং পে-এর জন্য এনএফসি এবং এমএসটি
  • USB Type-C ইউএসবি টাইপ-সি
  • ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন জ্যাক
  • Bluetooth 5.0 ব্লুটুথ ৫.০
  • এলটিই ক্যাট ১৬
  • ওয়াইফাই: ৮০২.১১ এ/বি/জি/এন/এসি

* জানুন ব্যবহৃত জিনিস কিভাবে দ্রুত বিক্রি করবেন! *

Comments

comments