অনলাইনে কেনাবেচায় প্রতারণা রোধে Bikroy-এর নতুন দুই পদক্ষেপ

বাংলাদেশে ই-কমার্স ইন্ডাস্ট্রি দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। একই সাথে কিছু ব্যক্তি নিজেদের সুবিধার্থে অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে ছদ্মনাম ব্যবহার করে প্রতারণা এবং চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে। সম্প্রতি, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা অনলাইন কেনা-বেচার সাইটগুলোর জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী করার দিকে নজর দিচ্ছে। বাংলাদেশে কেনাবেচার সবচেয়ে বড় অনলাইন মার্কেটপ্লেস Bikroy অনলাইন সাইটে এ ধরনের অপ্রত্যাশিত ঘটনা রোধ করতে কাজ করছে এবং নতুন দুটি পদক্ষেপ নিয়েছে।

এই পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়নের অন্যতম একটি হচ্ছে- বিজ্ঞাপন প্রদানকারীদের অ্যাকাউন্ট যাচাই প্রক্রিয়া। এতে নতুন বিজ্ঞাপন প্রদানকারীদের একটি বাধ্যতামূলক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হবে, যেখানে এসএমএস দিয়ে একটি এককালীন পিন কোডের মাধ্যমে তাদের মোবাইল নাম্বারগুলোকে যাচাই করা হবে। এতে করে বিজ্ঞাপন প্রদানকারীরা নিজেদের ছাড়া অন্য কারও ফোন নাম্বার ব্যবহার করতে পারবেন না।

এছাড়া ফেব্রুয়ারি থেকে বিক্রেতাদের সকল রেপ্লিকা এবং ক্লোন পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রদানের অনুমোদন বন্ধ করে দিয়েছে Bikroy। বাংলাদেশে ক্লোন এবং রেপ্লিকা ফোনগুলোর একটি বিশাল বাজার রয়েছে। বিক্রেতারা নিয়মিত এবং প্রকাশ্যে এই সব রেপ্লিকাগুলো বিক্রি করছে এবং ক্রেতারাও এই নকল পণ্যগুলোকে আসল পণ্য মনে করে বিভ্রান্ত হয়ে ক্রয় করছেন। বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ইনটেলেকচুয়াল প্রোপার্টি আইন অনুযায়ী, অন্য কোম্পানির ট্রেড মার্ক ব্যবহার অবৈধ। সে জন্যই অনলাইন সাইটে সব ধরনের ক্লোন পন্যের বিজ্ঞাপন বন্ধের ব্যবস্থা নিয়েছে Bikroy।

Bikroy-এর মার্কেটিং ডিরেক্টর মিশা আলী বলেন, “বাংলাদেশে কেনাবেচার সবচেয়ে বড় মার্কেটপ্লেস হিসেবে Bikroy-এ আমরা আমাদের ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা প্রদানের জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ। গত বছর আমরা ‘Buy Now’ সার্ভিস নিয়ে এসেছিলাম, যা আমাদের ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা বৃদ্ধি করেছে এবং আমরা আবারো অনাকাঙ্ক্ষিত  এবং ক্লোন পণ্যের বিজ্ঞাপন বন্ধ করে এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করে সেটি অব্যাহত রেখেছি। তিনি আরও বলেন, “আইনের সহায়তায় বাংলাদেশের অনলাইন গ্রাহকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমরা ভবিষ্যতেও নিয়মিত কাজ করে যাব”।

 

Comments

comments